গ্রামীণফোনের নতুন সিএফও ইয়েন্স বেকার

গ্রামীণফোনের নতুন সিএফও ইয়েন্স বেকার

গ্রামীণফোনের নতুন প্রধান আর্থিক কর্মকর্তা (সিএফও) হিসেবে দায়িত্ব নিয়েছেন ইয়েন্স বেকার। এ পদে তিনি আগের সিএফও কার্ল এরিক ব্রোতেনের স্থলাভিষিক্ত হয়েছেন।


গত ১৫ আগস্ট গ্রামীণফোনে যোগ দেওয়ার আগে ইয়েন্স বেকার পোল্যান্ডভিত্তিক টি-মোবাইলের সিএফও হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন বলে এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয় বুধবার (২১ আগস্ট)। 

এর আগে তিনি ‘টি-অনলাইন ইন্টারন্যাশনাল এজি’-এর সিএফও হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। এছাড়া ডয়েচে টেলিকম গ্রুপে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে জার্মানি, পোল্যান্ড, ফ্রান্স ও স্পেনে তার রয়েছে ২০ বছরের কাজের অভিজ্ঞতা।
 
গ্রামীণফোনে যোগদান প্রসঙ্গে ইয়েন্স বেকার বলেন, সাত কোটিরও বেশি গ্রাহকের টেলিকম ও ডিজিটাল সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান গ্রামীণফোনে যোগ দিতে পেরে আমি গর্ববোধ করছি। চতুর্থ শিল্পবিপ্লবকে সামনে রেখে এ ধরনের একটি গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব গ্রহণ করা দারুণ চ্যালেঞ্জিং একটি কাজ হতে যাচ্ছে আমার জন্যে।
 
জার্মানির ফ্রি ইউনিভার্সিটি অব বার্লিন থেকে ভূগোল, অর্থনীতি ও ব্যবসায় প্রশাসন বিষয়ে স্নাতকোত্তর সম্পন্ন করেছেন ইয়েন্স বেকার। এছাড়াও তিনি লন্ডন স্কুল অব ইকোনমিকস এবং ডয়েচে টেলিকম জেনারেল ম্যানেজমেন্ট প্রোগ্রামের অ্যালামনাই হিসেবে যুক্ত রয়েছেন।
 
গ্রামীণফোনের প্রধান নির্বাহী মাইকেল ফোলি বলেন, গ্রামীণফোন পরিবার ও বাংলাদেশে ইয়েন্সকে স্বাগত জানাতে পেরে আমি উৎফুল্ল। ইয়েন্স এর রয়েছে এক যুগেরও বেশি সময়ব্যাপী টেলিকমখাতে প্রধান আর্থিক কর্মকর্তা হিসেবে কাজের অভিজ্ঞতা। তার অভিজ্ঞতা ও দক্ষতা গ্রামীণফোন টিমে এক নতুন মাত্রা যোগ করবে।
 
টেলিনর গ্রুপের অঙ্গসংগঠন গ্রামীণফোন সাত কোটির বেশি গ্রাহক নিয়ে বাংলাদেশে কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে।
 
এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, ১৯৯৭ সালে যাত্রা শুরু করার পর দেশব্যাপী সর্ববৃহৎ নেটওয়ার্ক গড়ে তুলেছে গ্রামীণফোন, যার মাধ্যমে দেশের ৯৫ শতাংশ মানুষ সেবা গ্রহণ করতে পারে।