গোদাগাড়ীতে নিখোঁজের দু’দিন পর কলেজছাত্রের মরদেহ উদ্ধার

গোদাগাড়ীতে নিখোঁজের দু’দিন পর কলেজছাত্রের মরদেহ উদ্ধার

রাজশাহীর গোদাগাড়ীতে নিখোঁজ হওয়ার দু’দিন পর জয়নাল আবেদীন নামের এক কলেজছাত্রের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। শনিবার (১৩ অক্টোবর) সকালে গোদাগাড়ী পৌর এলাকার সারাংপুর গ্রামের এক পুকুরে মরদেহটি ভেসে ওঠে।

পরে স্থানীয়রা থানায় খবর দেন। খবর পেয়ে গোদাগাড়ী থানা পুলিশ ও উপজেলা ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহটি উদ্ধার করে।

জয়নাল আবেদীন গোদাগাড়ী সরকারি কলেজের দ্বাদশ (২য় বর্ষের) শ্রেণির ছাত্র ছিলো। জয়নালের গ্রামের বাড়ি পার্শ্ববর্তী  চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার চর হরিশপুরে। সে ওই গ্রামের খোরশেদ হোসেনের ছেলে।

রাজশাহীর গোদাগাড়ী পৌর এলাকার সারাংপুরে গ্রামে বোনের বাড়ি থেকে সে পড়াশোনা করতো। গত বৃহস্পতিবার (১১ অক্টোবর) দুপুরে বাড়ি থেকে বের হয়ে নিখোঁজ হয় জয়নাল। পরে এ ঘটনায় শুক্রবার (১২ অক্টোবর) জয়নালের বাবা ও বোনের স্বামী গোদাগাড়ী থানায় গিয়ে তার নিখোঁজের ব্যাপারে সাধারণ ডায়েরি করেন।

জয়নালের বাবা খোরশেদ হোসেনের দাবি, কেউ তার ছেলেকে বাড়ি থেকে ডেকে নিয়ে গিয়ে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করেছে। দোষীদের খুঁজে বের করে আইন অনুযায়ী শাস্তি দেওয়ার দাবিও জানান নিহত কলেজছাত্রের বাবা।

জানতে চাইলে রাজশাহীর গোদাগাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাহাঙ্গীর আলম  বলেন, নিখোঁজের দু’দিন পর সকালে জয়নালের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। তার মৃত্যুর সঠিক কারণ জানতে মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

ময়নাতদন্ত রিপোর্ট হাতে পেলে নিশ্চিত হওয়া যাবে এটি হত্যা না আত্মহত্যা। তারপর আইন অনুযায়ী প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলেও জানান গোদাগাড়ী থানার এই পুলিশ কর্মকর্তা।