গাড়ির চাপে বিরক্ত হয়ে বিদ্যুতের তার বেয়ে রাস্তা পার!

গাড়ির চাপে বিরক্ত হয়ে বিদ্যুতের তার বেয়ে রাস্তা পার!

কাজের সময় রাস্তা পার হওয়াটা যে কত বড় ঝামেলা, ঢাকাবাসী তা খুব ভালো করেই জানে! গাড়ি একটার পর একটা যাচ্ছে তো যাচ্ছেই, শেষ হওয়ার নাম নেই। ফুটওভার ব্রিজ থাকলে হয়তো কিছুটা রক্ষা।


কিন্তু, যেখানে ফুটওভার ব্রিজ নেই, সেখানে? ১০ ফুটের একটা রাস্তা পার হতেই হয়তো দাঁড়িয়ে থাকতে হয় ২০-৩০ মিনিট, কখনো কখনো আরও বেশি! কতক্ষণ আর ধৈর্য থাকে! সেদিক থেকে স্পাইডার-ম্যান হলে কত্ত ভালো হতো! রাস্তা তো বটেই, বড় বড় বিল্ডিংও পার হওয়া যেতো বেয়ে বেয়েই।

এমনটা ভেবেই হয়তো সম্প্রতি ‘স্পাইডার-ম্যান’ হয়ে উঠেছিলেন ভিয়েতনামের এক ব্যক্তি। অতিরিক্ত গাড়ির চাপে বিরক্ত হয়ে বৈদ্যুতিক তার বেয়েই সড়ক পার হতে যাচ্ছিলেন তিনি।

সোমবার (৭ অক্টোবর) ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম ডেইলি মেইল জানায়, গত সপ্তাহে ঘটনাটি ঘটেছে ভিয়েতনামের রাজধানী হ্যানয়ে।

অনেকক্ষণ অপেক্ষার পরেও গাড়ির ভিড়ে সড়ক পার হওয়ার সুযোগ না পেয়ে ক্ষেপে যান ওই ব্যক্তি। উঠে পড়েন পাশে থাকা বৈদ্যুতিক পোল বেয়ে। এরপর, একগুচ্ছ তার ধরে বেয়ে বেয়ে সড়ক পার হতে থাকেন তিনি।

এমন কাণ্ড দেখে হতভম্ব হয়ে পড়েন নিচে সড়ক দিয়ে চলাচলরত গাড়ির যাত্রীরা। একজন এ ঘটনা ভিডিও করে ছেড়ে দেন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। এরপর দ্রুতই ভাইরাল হয়ে পড়ে সেটি।

কেউ কেউ ওই ব্যক্তিকে ‘ভিয়েতনামের স্পাইডার-ম্যান’ খেতাব দিলেও সমালোচনা করেছেন অনেকেই। এভাবে তিনি শুধু নিজের জীবনই নয়, ঝুঁকিতে ফেলেছেন অন্যদেরও। হাত পিছলে বা বৈদ্যুতিক তার ছিড়ে পড়ে গেলে নির্ঘাৎ প্রাণ যেতো তার। ঘটতে পারতো বড় দুর্ঘটনাও। তাই, যতই ব্যস্ততা থাক, এমন পাগলামী থেকে সবাইকে বিরত থাকার আহ্বান জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা।