গাজী মাজহারুল আনোয়ারের সঙ্গে ওমরসানী-মৌসুমীর কিছুটা সময়

গাজী মাজহারুল আনোয়ারের সঙ্গে ওমরসানী-মৌসুমীর কিছুটা সময়

বিনোদন প্রতিবেদক : হঠাৎ করেই অসুস্থ হয়ে রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে একদিন চিকিৎসাধীন ছিলেন একুশে পদকপ্রাপ্ত বরেণ্য গীতিকার, পরিচালক, প্রযোজক, কাহিনীকার গাজী মাজহারুল আনোয়ার। গেলো শনিবার পরপর দুইবার মাথা ঘুরে বাসায় পড়ে যাওয়াতে দুই দফায় তাকে হাসপাতালে নেয়া হয়েছিলো। শনিবার হাসপাতালে চিকিৎসার পর সুস্থ হয়ে রবিবার দুপুরে বাসায় ফিরেছেন তিনি। বাসায় ফেরার পরপরই তাকে দেখতে এবং তারসঙ্গে একান্তে কিছুটা সময় কাটাতে রাজধানীর বারিধারা পার্ক রোডে উপস্থিত হয়েছিলেন রবিবার। ওমরসানী মৌসুমী যখন তাঁর বাসায় গিয়ে পৌঁছান গাজী মাজহারুল আনোয়ার তখন ঘুমাচ্ছিলেন। তাঁর ঘুম না ভাঙ্গা পর্যন্ত ওমরসানী-মৌসুমী অপেক্ষা করছিলেন তাকে একটু দেখার জন্য। বেশ কিছুটা সময় অপেক্ষার পর গাজী মাজহারুল আনোয়ারের ঘুম ভাঙ্গে। হঠাৎ তার বাসায় ওমরসানী মৌসুমীকে দেখতে পেয়ে বেশ খুশী হন তিনি। প্রায় দুই ঘন্টা সময় নানান ধরনের গল্পে মেতে উঠেন গাজী মাজহারুল আনোয়ার, ওমরসানী ও মৌসুমী।

 গাজী মাজহারুল আনোয়ার বলেন,‘ মহান আল্লাহর রহমতে এখন বেশ সুস্থ আছি, ভালো আছি। অনেক ধন্যবাদ ওমরসানী মৌসুমীকে তাদের ব্যস্ততাকে পিছনে ফেলে সময় করে আমাকে দেখতে আসার জন্য। দোয়া করি আল্লাহ যেন তাদের ভালো রাখেন, সুস্থ রাখেন।’ ওমরসানী বলেন,‘ গাজী মাজহারল আনোয়ার আমার বাবারই মতো। তাকে আমি বাবার মতোই শ্রদ্ধা করি। তার নির্দেশনায় বেশ কয়েকটি সিনেমাতে আমি অভিনয় করেছি। তিনি আমাকে তার সন্তানের মতোই ¯েœহ করেন। আল্লাহর অসীম রহমত যে তিনি সুস্থ আছেন, ভালো আছেন। একজন গাজী মাজহারুল আনোয়ার আমাদের দেশের গর্ব। তিনি আমাদের মাঝে বেঁচে আছেন এটাই আমাদের জন্য অনেক অনেক বড় পাওয়া।’ প্রিয়দর্শিনী মৌসুমী বলেন,‘ একজন গাজী মাজহারুল আনোয়ার এই দেশের সম্পদ। তিনি আমাকে তার মেয়ের মতোই ¯েœহ করেন। গতকাল হঠাৎ তার অসুস্থতার খবর পেয়ে মনটা ভীষণ খারাপ হয়ে গিয়েছিলো। আল্লাহর কাছে শুকরিয়া যে তিনি সুস্থ হয়ে আমাদের মাঝে ফিরে এসেছেন। তিনি আমাদের চলচ্চিত্রের বটবৃক্ষ। এমন বটবৃক্ষের ছায়াতলে সারাটা জীবন থাকতে চাই।’  ছবি ঃ গোলাম সাব্বির।