‘গহীনের গান’ নিয়ে ঢাকার প্রেক্ষাগৃহে আসিফ আকবর

‘গহীনের গান’ নিয়ে ঢাকার প্রেক্ষাগৃহে আসিফ আকবর

বলাকা প্রেক্ষাগৃহে আমান রেজার সেলফিতে 'গহীনের গান’ সিনেমার শিল্পী-কলাকুশলী

অভিনেতা হিসেবে বড় পর্দায় অভিষেক ঘটলো কণ্ঠশিল্পী আসিফ আকবরের। শুক্রবার (২০ ডিসেম্বর) তার প্রথম মিউজিক্যাল সিনেমা ‘গহীনের গান’ মুক্তি পেয়েছে দেশের ১৫টি প্রেক্ষাগৃহে।


সকালে রাজধানীর বলাকা সিনেমাসে ‘গহীনের গান’ সিনেমার শিল্পী-কলাকুশলী নিয়ে প্রথম শোতে অংশ নেন আসিফ আকবর। সঙ্গে ছিলেন সিনেমাটির পরিচালক সাদাত হোসাইন, অভিনেতা আমান রেজা, চিত্রগ্রাহক বিদ্রোহী দীপনসহ অনেকে।

অভিনেতা আমান রেজা  বলেন, সাধারণত সকালের শো’তে দর্শক একটু কমই হয়। তবে যারাই সিনেমা দেখতে এসেছেন, তাদের মধ্য অন্যরকম আনন্দ দেখতে পেলাম। সবাই একটু পর পরই তালি দিচ্ছেন। বিষয়টা বেশ ভালো লাগছে।

আসিফ আকবর ফেসবুকে জানিয়েছেন, শুক্রবার সকাল দশটায় দর্শকদের সঙ্গে ‘গহীনের গান’ দেখতে বলাকা প্রেক্ষাগৃহে যাবেন। একই দিন দুপুর ৩টায় শ্যামলী ও সন্ধ্যা ৬টায় মধুমিতা প্রেক্ষাগৃহে থাকবেন তিনি। শনিবার (২১ ডিসেম্বর) সকালে ব্লকবাস্টার, দুপুর ৩টায় টঙ্গীর চম্পাকলি, সন্ধ্যায় সাভারের চন্দ্রিমাতে যাবেন এই কণ্ঠশিল্পী-অভিনেতা। 

প্রথম সিনেমা মুক্তি প্রসঙ্গে আসিফ আকবর বলেছেন, সিনেমাটিতে হৃদয়ের গহীনের আনন্দ-বেদনার কাব্য বলেছি আমরা। এই গল্প যে কারোর সঙ্গে মিলে যেতে পারে। আমরা সিনেমাটিকে সবার হৃদয়ের কাছে পৌঁছে দেওয়ার জন্য হলে হলে যাবো।

বাংলাঢোল প্রযোজিত ‘গহীনের গান’ প্রথম সপ্তাহে মুক্তি দেওয়া হচ্ছে অন্তত ১৫টি প্রেক্ষাগৃহে। ঢাকায় হলের তালিকায় রয়েছে- ব্লকবাস্টার সিনেমাস, বলাকা, শ্যামলী, মধুমিতা, সেনা সিনেমা হল, গীত।

ঢাকার বাইরে রয়েছে নিউ মেট্রো (নারায়ণগঞ্জ), চম্পাকলি (টঙ্গী), চন্দ্রিমা (সাভার), পুরবী (ময়মনসিংহ), শাপলা (রংপুর), চিত্রালী (খুলনা), রূপকথা (পাবনা) প্রভৃতি। 

সিনেমাটির পরিবেশক দি অভি কথাচিত্র জানিয়েছে, নতুন সপ্তাহে আরও কিছু প্রেক্ষাগৃহে সিনেমাটি দেখা যাবে। 

‘গহীনের গান’-এ আসিফ আকবরের সঙ্গে অভিনয় করেছেন সৈয়দ হাসান ইমাম, তানজিকা আমিন, তমা মির্জা, আমান রেজা, কাজী আসিফ রহমান ও তুলনা আল হারুন। এতে ব্যবহার করা হয়েছে আসিফ আকবরের গাওয়া নয়টি নতুন গান।