খুমেকের আইসোলেশন ইউনিটে আরও দু’জন ভর্তি

খুমেকের আইসোলেশন ইউনিটে আরও দু’জন ভর্তি

করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত সন্দেহে খুলনা মেডিকেল কলেজ (খুমেক) হাসপাতালের করোনা আইসোলেশন ইউনিটে দুইজনকে ভর্তি করা হয়েছে। বুধবার (২৫ মার্চ) দিবাগত রাত ২টায় তাদেরকে ভর্তি করা হয়। এরা খুলনার বটিয়াঘাটা উপজেলার বাসিন্দা।

খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা ইউনিটের চিকিৎসক শৈলেন্দ্রনাথ জানান, বুধবার রাতে জ্বর অবস্থায় এক নারীকে তার বন্ধবী হাসপাতালে নিয়ে এসেছেন। তার সিনড্রম দেখে বান্ধবীসহ করোনা ইউনিটের আইসোলেশনে রাখা হয়েছে। যেহেতু তারা একত্রে এসেছেন তাই দুজনকেই আইসোলেশনে রাখা হয়েছে। সিনিয়র চিকিৎসকরা তাদের পর্যবেক্ষণ করছেন। তাদের অবস্থা এখনো ভালো। যদি সিনড্রম বাড়ে তাহলে আইইডিসিআরে রক্তের নমুনা পাঠানো হবে।

এর আগে মঙ্গলবার (২৪ মার্চ) একজন পুলিশ সদস্য ও তার বাবাকে ভর্তি করা হয়েছে। মঙ্গলবার রাতে তাদের খুমেক হাসপাতালের আইসোলেশন ইউনিটে ভর্তি করা হয়। হাসপাতালে ভর্তি পুলিশ সদস্য খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশের (কেএমপি) পুলিশ লাইনের কনস্টেবল। তার সেবায় নিয়োজিত থাকায় বাবাকেও হাসপাতালে ভর্তি রাখা হয়েছে। তারা মাগুরা সদর উপজেলার কাপাশাটি গ্রামের বাসিন্দা।

পুলিশ সদস্য এই হাসপাতালের করোনা ইউনিটে ভর্তি হওয়া প্রথম রোগী। তারাও সুস্থ আছেন বলে জানিয়েছেন ডা. শৈলেন্দ্রনাথ।