খাশোগির ছেলেকে ফোন করে সমবেদনা সৌদি বাদশাহ-যুবরাজের!

খাশোগির ছেলেকে ফোন করে সমবেদনা সৌদি বাদশাহ-যুবরাজের!

হত্যাকাণ্ডের শিকার সাংবাদিক জামাল খাশোগির ছেলে সালাহকে ফোন করে ‘সমবেদনা’ জানিয়েছেন সৌদি আরবের বাদশাহ সালমান বিন আব্দুল আজিজ আল সৌদ ও ক্রাউন প্রিন্স (‍যুবরাজ) মোহাম্মদ বিন সালমান। ইস্তাম্বুলে সৌদি কনস্যুলেটে খাশোগি খুন হওয়ার পর সৌদি রাজপরিবারের বিরুদ্ধে অভিযোগের আঙুল উঠলেও বাদশাহ-যুবরাজের এ ‘সমবেদনা জ্ঞাপনের’ খবর দিয়েছে সংবাদমাধ্যম।

যুক্তরাষ্ট্রে স্বেচ্ছানির্বাসিত খাশোগি ছিলেন বাদশাহ-যুবরাজসহ সৌদি রাজপরিবারের কট্টর সমালোচক। গত ২ অক্টোবর ইস্তাম্বুলের সৌদি কনস্যুলেটে গিয়ে ‘নিখোঁজ’ হয়ে যান তিনি। তখন তুরস্কের তরফ থেকে বলা হয়, খাশোগিকে কনস্যুলেটে হত্যা করা হয়েছে। প্রথমে সৌদি আরব এ অভিযোগ উড়িয়ে দিয়ে দাবি করে, খাশোগি কনস্যুলেট  থেকে বেরিয়েই গেছেন। পরে অবশ্য স্বীকারোক্তি দিয়ে দাবি করে, কনস্যুলেটের কর্মকর্তাদের সঙ্গে মারামারিতে প্রাণ হারিয়েছেন খাশোগি। সবশেষ সৌদির পররাষ্ট্রমন্ত্রী আদেল আল জুবায়ের স্বীকার করেন, খাশোগি আসলে খুনই হয়েছেন।

এ নিয়ে প্রথম থেকেই সৌদির প্রভাবশালী যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের দিকে অভিযোগের আঙুল তোলা হচ্ছিলো। এমনকি হত্যাকাণ্ডে অংশ নেওয়া কয়েকজন মোহাম্মদের খুব ঘনিষ্ঠ বলেও খবর মেলে বিভিন্ন সূত্রে।

বাদশাহ-যুবরাজ অভিযোগের বলয়ে থাকলেও সোমবার (২২ অক্টোবর) সৌদি প্রেস এজেন্সি জানায়, তারা দু’জনেই খাশোগিপুত্র সালাহকে ফোন করে সমবেদনা জানিয়েছেন।

তবে এর বাইরে বাদশাহ-যুবরাজ আর কিছু বলেছেন কি-না, তা জানা যায়নি।