খালেদা জিয়ার রায়ের কপি পেতে বিলম্বের দায় আইনজীবীদের: কামরুল

খালেদা জিয়ার রায়ের কপি পেতে বিলম্বের দায় আইনজীবীদের: কামরুল

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার রায়ের সার্টিফায়েড কপি পেতে বিলম্বের জন্য তার আইনজীবীরা দায়ী বলে মনে করেন খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম। তিনি বলেন, রায় ঘোষণার সাথে সাথে সার্টিফাইড কপির জন্য বিএনপির পক্ষ থেকে কোনো দরখাস্ত দেওয়া হয় নাই। তারা দরখাস্ত দিয়েছে দু-দিন পরে। অর্থাৎ অহেতুক তারা বিলম্ব করে রবিবারে তারা দরখাস্ত দিয়েছে। রোববার জাতীয় প্রেসক্লাবে বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের এক আলোচনায় তিনি এসব কথা বলেন।

কামরুল ইসলাম বলেন, খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা অদক্ষতা দেখিয়েছেন। তারা ডিভিশন প্রাপ্তির বিষয়ে দরখাস্ত দিয়েছে দুদিন পর। এগুলোর কারণ, জনমনে বিভ্রান্তি সৃষ্টি করতে এবং অহেতুক একটা ধুম্রজাল সৃষ্টির চেষ্টা। তিনি বলেন, আগামী ডিসেম্বরে নির্বাচন হবে, সেই নির্বাচন হবে শেখ হাসিনার সরকারের অধীনে। সেখানে কে আসলো কে আসলো না সেটা দেখা হবে না। খালেদা জিয়াকে ছাড়া বিএনপি নির্বাচনে আসবে কি আসবে না, এটা তাদের ব্যাপার। সেসব নিয়ে সরকারের মাথা ঘামানোর সময় নেই। আওয়ামী লীগ নেতা কামরুল বলেন, তারেক রহমান লন্ডনে বসে ষডযন্ত্র করছেন, সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের পরিকল্পনা করছে। নির্বাচন বন্ধ করার পাঁয়তারা করছে। কিন্তু এই নির্বাচনে অংশ না নিলে বিএনপি অস্তিত্বহীন হয়ে পড়বে। বিএনপিকেই সিদ্ধান্ত নিতে হবে, দলের মৃত্যুঘণ্টা না বাজাতে চাইলে আগামী নির্বাচনের প্রস্তুতি নিন।

তিনি বলেন, আন্দোলনের নামে কেউ যদি রাষ্ট্রের ক্ষতি করে, সরকারের ক্ষতি করে তার বিরুদ্ধে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ব্যবস্থা নেবে। কারণ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কাজ হচ্ছে জানমালের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা। আয়োজক সংগঠনের উপদেষ্টা চিত্তরঞ্জন দাসের সভাপতিত্বে আলোচনায় অরও উপস্থিত ছিলেন সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শামসুল হক টুকু, বলরাম পোদ্দার, মোবারক আলী শিকদার, অরুণ সরকার রানা প্রমুখ।