খালেদা জিয়ার রায়ে সরকারের হাত নেই: হাছান

খালেদা জিয়ার রায়ে সরকারের হাত নেই: হাছান

স্টাফ রিপোর্টার: বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার দুর্নীতির মামলার রায়ে সরকারের হাত নেই বলে মন্তব্য করেছেন ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক হাছান মাহমুদ। তিনি বলেছেন, এ রায়ে সরকারের হাত থাকলে আগের মেয়াদেই রায় হতো। দশ বছর সুযোগ পেতো না। মামলাটি আওয়ামী লীগ-বিএনপির বিষয় নয়, জনগণের প্রত্যাশিত রায়। গতকাল শুক্রবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবে বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের আয়োজনে এক আলোচনা সভায় তিনি একথা বলেন।

হাছান মাহমুদ বলেন, বিএনপি নেত্রীর রায়ের মাধ্যমে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। আইনে সবাই সমান সেটা প্রমাণিত হয়েছে। রায়কে কেন্দ্র করে রাস্তায় ও আদালতের ভেতরে বিএনপির আইনজীবী ও নেতারা যে তান্ডব চালিয়েছেন, সেটা আদালতের প্রতি বৃদ্ধাঙ্গলী দেখানোর সমান। তিনি বলেন, ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠা করতে হলে অন্যায়ের প্রতিকার করতে হয়। তিনি বলেন, এ রায়ে সরকারের কোন হাত নেই। হাত থাকলেই আগের মেয়াদে দেওয়া হতো। কারণ আমরা যে ২০১৪ সালে আবার ক্ষমতায় আসবো তার কোন নিশ্চয়তা ছিল না।

বিএনপি নেতা রুহুল কবির রিজভীর বক্তব্য প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগ নেতা হাছান বলেন, কারো আবেগ নিয়ে কথা বলতে চাই না। তাদের দলের নেত্রীর জন্য কান্না করতেই পারেন। তবে ওই দলের নেত্রীর নিদের্শে যখন দেশব্যাপী প্রোট্রোল বোমা মেরে মানুষ হত্যা করা হলো, হাজার হাজার মানুষকে দº করা হলো-তখন তো তারা কান্না করেনি? বরং তাদের মুখে হাসি ছিল। তারা জনগণের জন্য কান্না করে না।

 খালেদা জিয়াও জনগণের জন্য কাদে না। তিনি দুর্নীতিবাজ পুত্রের সাজার সময়, নিজের বাড়ি হারানোর সময় কান্না করেন। প্রেট্রল বোমা হামলার জন্য খালেদা জিয়ার নামেও মামলা চালু করার দাবি করেন তিনি। বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের উপদেষ্টা লায়ন চিত্ত রঞ্জন দাসের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন সাবেক উপমন্ত্রী ও জাতীয় পার্টি-জেপির অতিরিক্ত মহাসচিব সাদেক সিদ্দিকী, ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-নুরুল আমিন রুহুল, বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের সাধারণ সম্পাদক অরুন সরকার রানা প্রমুখ।