খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবিতে স্বেচ্ছাসেবক দলের বিক্ষোভ

খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবিতে স্বেচ্ছাসেবক দলের বিক্ষোভ

স্টাফ রিপোর্টার : বেগম খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তি ও সুচিকিৎসার দাবিতে রাজধানীতে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে ঢাকা মহানগর উত্তর স্বেচ্ছাসেবক দল। গতকাল শুক্রবার দুপুরে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে থেকে মিছিলটি শুরু হয়। এরপর নাইটিঙ্গেল মোড় ঘুরে আবারও বিএনপি কার্যালয়ের কাছে গিয়ে সংক্ষিপ্ত সমাবেশের মধ্য দিয়ে তা শেষ হয়। বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীর নেতৃত্বে মিছিলে স্বেচ্ছাসেবক দলের কেন্দ্রীয় সভাপতি শফিউল বারী বাবু, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কাদির ভুইয়া জুয়েল, সহ-সভাপতি গোলাম সারোয়ার, সাংগঠনিক সম্পাদক ইয়াসিন আলী, সিনিয়র যুগ্ম-সম্পাদক সাইফুল ইসলাম ফিরোজ, যুগ্ম-সম্পাদক সাদরেজ জামান; উত্তরের সভাপতি ফখরুল ইসলাম রবিন, সাধারণ সম্পাদক কাজী রেজওয়ান হোসেন রিয়াজ, সিনিয়র সহ-সভাপতি হারুন-অর রশীদ; দক্ষিণের সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম, সিনিয়র সহ-সভাপতি রফিক হাওলাদারসহ দেড়-শতাধিক নেতা-কর্মী অংশগ্রহণ করেন।

 মিছিল শেষে এক সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে রিজভী বলেন, বেগম খালেদা জিয়ার বিপুল জনপ্রিয়তায় ঈর্ষান্বিত হয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মিথ্যা মামলায় তাকে কারাবন্দি করে রেখেছেন। ভীষণ অসুস্থ বেগম জিয়ার অসুস্থতার মাত্রাকে তীব্রতর করে জীবন বিপন্ন করার মাধ্যমে তাকে রাজনীতি থেকে দূরে সরিয়ে দিতে চান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এটি নিঃসন্দেহে শেখ হাসিনার গভীর মাস্টারপ্ল্যান। তিনি বলেন, খালেদা জিয়া গণতন্ত্রকে মুক্ত করতে আন্দোলন-সংগ্রাম চালিয়ে যাচ্ছেন। তাকে বেশিদিন কারাগারে আটকিয়ে রাখা যাবে না। জনগণ কারাগারের লৌহ কপাট ভেঙ্গে বেগম জিয়াকে মুক্ত করবেই। এ সময় খালেদা জিয়াকে তার পছন্দের হাসপাতালে সুচিকিৎসার সুযোগসহ নিঃশর্ত মুক্তির জোর দাবি জানান রিজভী। ঢাকা মহানগর উত্তর স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক গাজী রেজওয়ান হোসেন রিয়াজের সঞ্চালনায় এতে আরও বক্তব্য দেন-স্বেচ্ছাসেবক দলের শফিউল বারী বাবু, আব্দুল কাদির ভুইয়া জুয়েল, ফখরুল ইসলাম রবিন প্রমুখ।