খানসামায় ধানক্ষেত থেকে যুবকের লাশ উদ্ধার

খানসামায় ধানক্ষেত থেকে যুবকের লাশ উদ্ধার

খানসামা (দিনাজপুর) প্রতিনিধি : দিনাজপুরের খানসামায় ধানক্ষেতের আইলান থেকে গতকাল শুক্রবার সকালে মামুনুর রশিদ সোহাগ (৩৭) নামে মানসিক রোগাক্রান্ত এক যুবকের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে উপজেলার গোয়ালডিহি ছকি চেয়ারম্যানপাড়া ও মন্ডলপাড়ার মধ্যবর্তী জনৈক ইমান আলীর ধানক্ষেতের আইলানে। মৃত সোহাগ ওই গ্রামের দরিদ্র মোসলেম উদ্দিনের বড় ছেলে।এলাকাবাসী সোহরাব আলীর ছেলে ফজলু হক বলেন, আমি সকাল ৭টার দিকে আমার ধানক্ষেত দেখার জন্য ইমান আলীর ধানক্ষেতের আইলান দিয়ে যচ্ছিলাম। হঠাৎ দেখি একটা লোক পড়ে আছে। আমি ভয়ে চিৎকার করে দৌড়ে যেয়ে ইউপি সদস্য মাসুদ রানা বাবুকে জানাই।

মৃতের বাবা মোসলেম উদ্দিন জানান, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় আমার ছেলে বাড়ি থেকে বেরিয়ে যায়। আমরা গভীর রাত পর্যন্ত তাকে খুঁজতে থাকি। সকালে প্রতিবেশীরা ডাকাডাকি করে জানায় সোহাগ ধানক্ষেতে পড়ে আছে। গিয়ে দেখি আমার ছেলে পড়ে আছে। আমার ছেলে অনেক দিন ধরে মানসিক রোগে ভুগছে। সে আগেও মরার জন্য কয়েকবার ঘুমের ওষুধ খায়, গালায় ফাঁসও দিছিল। প্রতিবেশীরা জানায়, মৃত সোহাগ দিনাজপুর সরকারি কলেজ থেকে ইংরেজিতে অনার্স পাস করে বেকার জীবন কাটাচ্ছিলেন। ছাত্র জীবনে প্রখর মেধাবী ছিলেন তিনি। প্রাথমিক ও মাধ্যমিকে ট্যালেন্টপুল বৃত্তিপ্রাপ্ত হয়ে কাচিনীয়া স্কুল এন্ড কলেজ থেকে এস.এস.সিতে স্টার মার্কস পেয়ে সৈয়দপুর ক্যান্টপাবলিক স্কুল এন্ড কলেজ থেকে এইচ.এস.সিতে ভালো রেজাল্ট করেন।খানসামা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আব্দুল মতিন প্রধান জানান, সে মানসিক রোগী ছিল। লাশের কাছে ওষুধের অনেকগুলো খালি পাতা পাওয়া গেছে। সুরতহাল করে আঘাতের কোন চি‎হ্ন পাওয়া যায়নি। কোন অভিযোগ না থাকায় লাশ দাফন করতে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।