কুড়িলে সেলফি তুলতে গিয়ে ট্রেনের ধাক্কায় স্কুলছাত্র নিহত

কুড়িলে সেলফি তুলতে গিয়ে ট্রেনের ধাক্কায় স্কুলছাত্র নিহত

রাজধানীর কুড়িল বিশ্বরোড রেললাইন এলাকায় সেলফি তুলতে গিয়ে ট্রেনের ধাক্কায় ইমরান হোসেন (১৫) নামে এক স্কুলছাত্র নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় আল রাফি নামে নিহত ইমরানের আরও সহপাঠী মুমূর্ষু অবস্থায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

রোববার (১৬ ফেব্রুয়ারি) সকাল ১১টার দিকে কুড়িল বিশ্বরোড সংলগ্ন রেললাইনে এই দুর্ঘটনা ঘটে। এসময় ইমরান ও রাফি গুরুতর আহত হন।

পরে আহত অবস্থায় দুই ছাত্রকে প্রথমে কুর্মিটোলা হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানেই ইমরানের মৃত্যু হয়, পরবর্তীতে রাফিকে মুমূর্ষু অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে উন্নত চিকিৎসার উদ্দেশ্যে সেখান থেকে রাফির আত্মীয়-স্বজন তাকে অন্য হাসপাতালে নিয়ে যান।

রফির বাবা কামাল হোসেন জানান, সে বর্তমানে গ্রীনরোডের নিউ লাইফ হাসপাতালের আইসিইউতে আছে। নিহত ইমরান ও রাফি দুজনই ভুলতা এলাকার মজিবুর রহমান উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণীর ছাত্র।

নিহত ইমরান নারায়গঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলার ভুলতা গাউছিয়া এলাকার শাহ আলমের ছেলে।

ঢাকা বিমানবন্দর রেল স্টেশনের পুলিশ ফাঁড়ির (এএসআই) মো. মহিউদ্দিন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, রোববার নারায়ণগঞ্জ থেকে ৫ বন্ধু কুড়িলে ঘুরতে যায়। সেখানেই বিশ্বরোড সংলগ্ন রেললাইনে মোবাইলে সেলফি তোলার সময় অসাবধানতাবশত ট্রেনের ধাক্কায় দুইজন আহত হয়। অপর তিন বন্ধু তাদের উদ্ধার করে কুর্মিটোলা হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানে ইমরানের মৃত্যু হয়। পরে আহত অবস্থায় আল রাফিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। পরে সেখান থেকে তার আত্মীয়-স্বজন উন্নত চিকিৎসার জন্য তালে আরেক হাসপাতালে নেন। রাফির অবস্থাও আশঙ্কাজনক বলে জানান এ পুলিশ কর্মকর্তা।

আইনি প্রক্রিয়া শেষ করে ইমরানের মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।