কাশ্মীরের বিচ্ছিন্নতাবাদী দলের প্রধান আটক

কাশ্মীরের বিচ্ছিন্নতাবাদী দলের প্রধান আটক

ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরের বিচ্ছিন্নতাবদী জম্ম-কাশ্মীর লিবারেশন ফ্রন্টের (জেকেএলএফ) প্রধান ইয়াসিন মালিককে আটক করছে পুলিশ পুলিশ। শুক্রবার গভীর রাতে পুলিশ অভিযান চালিয়ে শ্রীনগরের মাইসুমার বাড়ি থেকে তাকে আটক করে। টাইমস অব ইন্ডিয়ার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, কাশ্মীরের পুলওয়ামায় হামলায় দেশটির আধাসামরিক বাহিনীর অন্তত ৪০ জন সদস্য নিহত হওয়ার পর রাজ্যে নিরাপত্তা জোরদার কারা হয়েছে। তবে আর কাউকে আটক করা হয়েছে কি না এমন তথ্য জানা যায় নি।
জেকেএলএফ প্রধান ইয়াসিন মালিককে আটক করে স্থানীয় কোঠিবাগ থানায় নিয়েছে পুলিশ। পুলওয়ামা হামলার পর কাশ্মীরের বিচ্ছিন্নতাবাদী নেতাদের নিরাপত্তা প্রত্যাহার করে নেয় ভারত। নিরাপত্তা প্রত্যাহারের পর প্রথমেই বিচ্ছিন্নতাবাদী দলের প্রধানকে আটক করা হলো।

আরও পড়ুন>> কাশ্মীরিদের ওপর হামলা বন্ধে সরকারকে সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ

২৫ ফেব্রুয়ারি, সোমবার সুপ্রিম কোর্টে 'অনুচ্ছেদ ৩৫-এ' গুরুত্বপূর্ণ শুনানি হতে চলেছে। তার আগে, কাশ্মীরে পুলিশ ও আধাসামরিক বাহিনীকে হাইঅ্যালার্ট রাখা হয়েছে। তবে, ইয়াসিন মালিক ছাড়া আরও কোনও বিচ্ছিন্নতাবাদী নেতার গ্রেফতারি বা আটকের খবর মেলেনি।

সুপ্রিম কোর্টে ভারতীয় সংবিধানের অনুচ্ছেদ-৩৫ এর শুনানি হবে ২৫ ফেব্রুয়ারি। উল্লিখিত অনুচ্ছেদে বলা হয়েছে, বাইরের কেউ কাশ্মীরে জমি বা সম্পত্তি কিনতে পারবেন না। তাছাড়া বহিরাগতদের সেখানে কোনও সরকারি চাকরি বা বৃত্তি পাওয়ারও অধিকার নেই।

সম্প্রতি সংবিধানের অনুচ্ছেদ-৩৫’র গ্রহণযোগ্যতাকে চ্যালেঞ্জ করে সুপ্রিম কোর্টে পিটিশন দাখিল হয়। সেই মামলারই শুনানি শুরু হবে সোমবার থেকে। আর এমন পরিস্থিতির মধ্যেই বিচ্ছিন্নতাবাদী দলের প্রধান ইয়াসিন মালিককে আটক করা হলো।