এমএনপি সেবা উদ্বোধন রোববার, খরচ কমছে

এমএনপি সেবা উদ্বোধন রোববার, খরচ কমছে

মোবাইল নম্বর অপরিবর্তিত রেখে এক নম্বরে অন্য অপারেটরের সেবা বা এমএনপির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন হতে যাচ্ছে আগামী রোববার ( ২১ অক্টোবর)। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ওইদিন সকালে গণভবনে এমএনপি সেবার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করবেন বলে আমন্ত্রণপত্রে জানিয়েছে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি)।

এদিকে, অপারেটর এবং গ্রাহকদের দাবির পরিপ্রেক্ষিতে এমএনপি সেবার জন্য খরচ কমতে যাচ্ছে বলে জানিয়েছেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্য প্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার।
 
এমএনপি সেবা গ্রহণের জন্য একজন গ্রাহককে কাঙ্খিত অপারেটরের নতুন সিম ও এমএনপি চার্জ বাবদ ১৫৭ টাকা ৫০ পয়সা গুণতে হবে। এরমধ্যে এমএনপি চার্জ ৫০ টাকা ও ভ্যাট ৭ টাকা ৫০ পয়সা। আর সিম ক্রয় বাবদ গ্রাহককে ১০০ টাকা দিতে হচ্ছে।
 
গ্রাহককে কাঙ্খিত অপারেটরের সেবা কেন্দ্রে গিয়ে নির্দিষ্ট ফি প্রদান ও পুরনো সিম বদল করে নতুন সিম নিতে হবে। এমএনপি সেবা পেতে আবেদনের ৭২ ঘণ্টার মধ্যে সেবা চালু হলে পরবর্তী ৯০ দিন তিনি অপারেটর পরিবর্তন করতে পারবেন না।
 
টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বৃহস্পতিবার (১৮ অক্টোবর) বলেন, সিম বদলের জন্য যে ১০০ টাকা দিতে হয় তা মওকুফের জন্য অর্থ মন্ত্রণালয়ে প্রস্তাব পাঠানো হয়েছে। এ বিষয়ে আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেওয়ার বাকি রয়েছে।
 
এমএনপি সেবা উদ্বোধন অনুষ্ঠানে টেলিযোগাযোগ মন্ত্রীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি থাকবেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।
 
স্বাগত বক্তব্য রাখবেন বিটিআরসির চেয়ারম্যান জহুরুল হক এবং ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্য প্রযুক্তি বিভাগের সচিব শ্যাম সুন্দর সিকদার।
 
গত ১ অক্টোবর এমএনপি সেবা চালু করে সরকার। ওইদিন বিটিআরসি ভবনে সংবাদ সম্মেলনে করে এমএনপি চালুর ঘোষণা দেয় সংস্থাটি। এমএনপি সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান ইনফোজিলিয়ন টেলিটেক বিডি এই সেবা দিচ্ছে। এমএনপি সেবা নিয়ে একজন গ্রাহক ভয়েস ও ডাটা সেবা গ্রহণ করতে পারবেন।
 
গত বছরের ৩০ নভেম্বর বাংলাদেশ ও স্লোভেনিয়ার যৌথ কনসোর্টিয়াম ইনফোজিলিয়ন বিডি টেলিটেককে মোবাইল অপারেটরদের মাধ্যমে দেশে এমএনপি সেবা প্রদানের লক্ষ্যে লাইসেন্স প্রদান করা হয়।
 
অপারেশন চালুর ৬ মাসের মধ্যে দেশের মোবাইল গ্রাহকদের কমপক্ষে ১ শতাংশ, এক বছরের মধ্যে ৫ শতাংশ এবং পাঁচ বছরের মধ্যে ১০ শতাংশকে সেবার আওতায় নিয়ে আসতে হবে।
 
এমএনপি নীতিমালার শর্তানুযায়ী, বার্ষিক লাইসেন্স ফি ২৫ লাখ টাকা, রেভিনিউ শেয়ারিং (দ্বিতীয় বছর থেকে) ১৫ শতাংশ হারে এবং সামাজিক দায়বদ্ধতা তহবিলে দ্বিতীয় বছর থেকে বার্ষিক নিরীক্ষাকৃত আয়ের ১ শতাংশ বিটিআরসিকে প্রদান করতে হবে।
 
বিটিআরসির তথ্য অনুযায়ী, বর্তমানে বিশ্বের ৭২টি দেশে এমএনপি সেবা চালু রয়েছে। প্রতিবেশি ভারতে ২০১১ সালে এবং পাকিস্তানে এমএনপি সেবা চালু হয় ২০০৭ সালে। এমএনপি সেবা চালু হওয়ায় অপারেটররা সেবার মান বৃদ্ধি করবে বলে জানায় বিটিআরসি।