একদশক পর একই ফ্রেমে

একদশক পর একই ফ্রেমে

বিনোদন প্রতিবেদক :  প্রয়াত বরেণ্য উপন্যাসিক, চলচ্চিত্র নির্মাতা হুমায়ূন আহমেদ’র নির্দেশনায় একই সিনেমায় অভিনয় করেছিলেন জাহিদ হাসান, ফেরদৌস ও বিদ্যা সিনহা মিম। জাহিদ হাসান, ফেরদৌস এর আগে সিনেমাতে কিংবা এর আগে হুমায়ূন আহমেদ’র নির্দেশনায় সিনেমাতে অভিনয় করলেও লাক্স চ্যানেলআই সুপারস্টার হবার পর ‘আমার আছে জল’ই ছিলো তার অভিনীত প্রথম সিনেমা। প্রথম সিনেমাতে তিনি জাহিদ হাসান ও ফেরদৌসের মতো গুনী অভিনয়শিল্পীর সঙ্গে অভিনয় করার সুযোগ পেয়েছিলেন। সিনেমাটি ২০০৮ সালের অক্টোবর মাসে মুক্তি পেয়েছিলো। এরপর জাহিদ হাসান ও ফেরদৌসের সঙ্গে আর কোন সিনেমায় একসঙ্গে কাজ করার সুযোগ হয়ে উঠেনি বিদ্যা সিনহা মিমের। শুধু তাই নয় কোন অনুষ্ঠানে একসঙ্গে এই তিন তারকা ছবি তোলারও সুযোগ পাননি। গেলো ১২ জানুয়ারি বিদ্যা সিনহা মিমের নিমন্ত্রণে রাজধানীর বুসন্ধরায় তারই নতুন বাসায় উপস্থিত হয়েছিলেন জাহিদ হাসান ও ফেরদৌস।

 জাহিদ হাসান, ফেরদৌস, মিম-এই তিন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত তারকা গল্প, আড্ডার এক ফাঁকে ‘আমার আছে জল’ সিনেমার সময়কালের স্মৃতিচারণ করেন। জাহিদ হাসান বলেন, দেখতে দেখতে দশ বছর পেরিয়ে গেছে, ভাবাই যায়না। এই মিম, সেই মিম-ভাবলেই অবাক হই। নিজেকে মিম অভিনয়ে আগের চেয়ে আরো বেশ পরিণত করেছে। তার জন্য সবসময়ই আমার শুভ কামনা।’ ফেরদৌস বলেন, ‘মিম আমাদের সিনেমার একজন যোগ্য অভিনয়শিল্পী। তাকে যথাযথভাবে আরো কাজে লাগানো গেলে আমার মনে হয় তার অবস্থান আরো দৃঢ় হতে পারতো। কারণ মিমের সেই যোগ্যতা আছে। তাই আমি চাই মিমকে যেন আরো ভালো ভালো গল্পের সিনেমায় কাজে লাগানো হয়। এখণই সেই সময় মিমকে কাজে লাগানোর। কারণ দেশ বিদেশে মিমের অনেক ভক্ত দর্শক আছে।’ বিদ্যা সিনহা মিম বলেন, ‘জাহিদ ভাই , ফেরদৌস ভাই শুরু থেকেই আমাকে ভীষণ ¯েœহ করেন। তারা দু’জনই আমার অভিনয় জীবনের প্রথম অনুপ্রেরণা, সহশিল্পী। তাই তাদের প্রতি সবসময়ই আমার অন্যরকম শ্রদ্ধা, ভালোবাসা কাজ করে। হুমায়ূন স্যার এবং জাহিদ ভাই, ফেরদৌস ভাইয়ের আশীর্বাদ নিয়েই কিন্তু আমি আগামীর পথে এগিয়ে গেছি। আমার আছে জল’র সময়টা এরইমধ্যে একদশক পেরিয়েগেছে, ভাবলে আমিও অবাক হই। আমি সবসময়ই কৃতজ্ঞ জাহিদ ভাই, ফেরদৌস ভাইয়ের কাছে।’ ছবি ঃ মোহসীন আহমেদ কাওছার।