একটি সিনেমার গল্প’ দেখতে শুভর সঙ্গে হলে যাবেন ঋতুপর্ণা

একটি সিনেমার গল্প’ দেখতে শুভর সঙ্গে হলে যাবেন ঋতুপর্ণা

অভি মঈনুদ্দীন : দীর্ঘদিন পর বাংলাদেশের কোন চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন দুই বাংলার জনপ্রিয় নায়িকা ঋতুপর্ণা। চিত্রনায়ক আলমগীর পরিচালিত ‘একটি সিনেমার গল্প’ চলচ্চিত্রে অভিনয় করেছেন তিনি। এতে তার বিপরীতে অভিনয় করেছেন বাংলাদেশের চলচ্চিত্রের এই সময়ের আলোচিত নায়ক আরিফিন শুভ। এরইমধ্যে ‘একটি সিনেমার গল্প’ চলচ্চিত্রটি দেখার জন্য দর্শকের মধ্যে বেশ আগ্রহও তৈরী হয়েছে। যদিও এখনো চলচ্চিত্রটি মুক্তির আরো ২৫দিন বাকী কিন্তু অনেক দর্শকের কাছে যেন এই ২৫টি দিনও অপেক্ষা যেন কঠিন হয়ে উঠছে। অবশ্য এর কারণও আছে। কারণ এই চলচ্চিত্রে ঋতুপর্ণা, আরিফিন শুভ ছাড়াও আরো দুটি গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করেছেন আলমগীর ও চম্পা। চলচ্চিত্রটিতে প্রথমবারের মতো একজন সঙ্গীত পরিচালক হিসেবে কাজ করেছেন আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন গায়িকা রুনা লায়লা।

 সবমিলিয়েই ‘একটি সিনেমার গল্প’ চলচ্চিত্রটি দেখার জন্য দর্শকের মধ্যে বেশ আগ্রহ তৈরী হয়েছে। অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছেন ঋতুপর্ণা নিজেও। আগামী ১৩ এপ্রিল মুক্তি প্রতীক্ষিত ‘একটি সিনেমার গল্প’ প্রসঙ্গে চিত্রনায়ক আরিফিন শুভ বলেন,‘ এই চলচ্চিত্রের কাহিনী, সংলাপ, প্রত্যেক শিল্পীর অভিনয় এবং গান সবাইকে মুগ্ধ করবে। এটি গতানুগতিক কোন গল্পের চলচ্চিত্র নয়। আমাদের জানা, অজানা, দেখা, অদেখা জীবনের গল্পের চলচ্চিত্র। নতুন এক সম্পর্কের গল্পের চলচ্চিত্র। এই চলচ্চিত্রে হয়তো আমাদের ইন্ডাষ্ট্রির কেউ কেউ নিজেদের জীবনের গল্পও খুঁজে পেতে পারেন। আলমগীর স্যারের প্রতি কৃতঞ্জ যে তিনি আমাকে তার নির্দেশনায় তারই চলচ্চিত্রে কাজ করার সুযোগ করে দিয়েছেন। দর্শকের উদ্দেশ্যে বলবো একটি সিনেমার গল্প দেখতে আপনার প্লিজ হলে যাবেন।

 যে ধরনের চলচ্চিত্র সপরিবারে দেখার জন্য অপেক্ষা করেন, এটি তেমনই একটি চলচ্চিত্র।’ মুঠোফোনে কলকাতা থেকে ঋতুপর্ণা বলেন,‘ আমি চলচ্চিত্রটি মুক্তির আগেই ঢাকায় চলে আসার চেষ্টা করছি। ভীষণ ইচ্ছে আছে আমার ঢাকার কয়েকটি হলে শুভ’কে সঙ্গে নিয়ে এটি উপভোগ করার। বাংলাদেশের সিনেমা হলে গিয়ে এর আগে চলচ্চিত্র উপভোগ করার কেমন কোন অভিজ্ঞতা নেই। তাই একটি সিনেমার গল্প চলচ্চিত্রটি উপভোগ করার ভীষণ ইচ্ছে আছে আমার। যদি সময় সুযোগ সব ব্যাটে বলে মিলে যায় তাহলে অবশ্যই শুভ’সহ ইউনিটের আরো অনেককেই সঙ্গে নিয়েই হলে হলে গিয়ে একটি সিনেমার গল্প উপভোগ করবো। অনেক ধন্যবাদ এবং কৃতজ্ঞতা আলমগীর ভাইয়ের প্রতি। তার নির্দেশনায় কাজ করে আমি ভীষণ মুগ্ধ। পুরো ইউটিনের সার্বিক সহযোগিতায় আমি চমৎকার একটি পরিবেশে কাজ করেছি। গল্পটা এতো চমৎকার, যে আমি খুবই আশাবাদী একটি সিনেমার গল্প নিয়ে।’ ‘একটি সিনেমার গল্প’র কাহিনী, সংলাপ, চিত্রনাট্য আলমগীরের নিজের। ‘আইকন এন্টারটেইনম্যান্ট’ চলচ্চিত্রটি প্রযোজনা করেছে। ছবি : শাহ সুলতান।