এক ধারাবাহিকে তিন প্রজন্ম

এক ধারাবাহিকে তিন প্রজন্ম

অভি মঈনুদ্দীন : গুনী নাটক ও চলচ্চিত্র নির্মাতা অনিমেষ আইচ বাংলাভিশনে প্রচারের জন্য নির্মাণ করেছিলেন ধারাবাহিক নাটক ‘দ্য গুড দ্য বেড অ্যা- দ্য আগলি’। এরইমধ্যে দর্শকের ভালোবাসায় নাটকটির শততম পর্ব প্রচার হয়েছে বাংলাভিশনে। অবশ্য এরইমধ্যে নাকটির সফল শততম পর্ব প্রচার উপলক্ষ্যে নাটকের অভিনীশিল্পীদের নিয়ে একটি স্মৃতিচারনামূলক অনুষ্ঠানেরও আয়োজন করা হয়েছিলো। অনুষ্ঠানে নাটকের প্রায় সবশিল্পীই অংশগ্রহণ করেছিলেন। সেই অনুষ্ঠানে অংশ নিয়েছিলেন এই ধারাবাহিকের তিন প্রজন্মের তিন অভিনয়শিল্পী লায়লা হাসান, রুনা খান ও আশনা হাবিব ভাবনা। নাটকটিতে অভিনয় প্রসঙ্গে লায়লা হাসান বলেন, ‘নি:সন্দেহে অনিমেষ আইচ একজন গুনী নির্মাতা। এই নাটকে অভিনয় করতে গিয়ে যে বিষয়টি আমার কাছে ভালোলেগেছে তা হলো অনিমেষ তার গল্পে দর্শককে সুরসুরি দিয়ে হাসানোর চেষ্টা করেনি। গল্পের ভেতর দর্শক প্রবেশ করলে দর্শক এমনিতেই হাসছেন।

 নাটকের তিনটি গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করেছেন জয়ন্ত চট্টোপাধ্যায়, ডা. এজাজ ও ফারুক আহমেদ। তিনজনকে ঘিরেই গল্প আবর্তিত হয়। আমি ভীষণ উপভোগ করেছি ধারাবাহিকটিতে অভিনয় করতে গিয়ে। রুনা ও ভাবনা দু’জনও বেশ চমৎকার অভিনয় করে। আমি তাদের খুব ¯েœহ করি।’ রুনা খান বলেন,‘ লায়লা আপা এদেশের একজন কিংবদন্তী শিল্পী। তারসঙ্গে কাজ করতে পারাটাই অনেক ভালোলাগার। অনিমেষ আইচ আমার ভীষণ পছন্দের একজন নির্মাতা। সবসমযই অনিমেষ ভালো কাজই দর্শককে উপহার দেবার চেষ্টা করে। এই ধারাবাহিকটিও ঠিক তাই। সবচেয়ে বড় কথা কী অনিমেষ’র নির্দেশনায় কাজ করতে গেলে কখন যে কাজ শেষ হয়ে যায় তা সত্যিই টের পাওয়া যায়না। আমাদের সময়টা আসলে অনেক ভালো কাটে।’ ভাবনা বলেন,‘ এখনতো আসলে নাটকে দেখা যায় যে জোর করে দর্শককে হাসানোর চেষ্টা করা হয়। শিল্পীরা মুখ বাঁকা করে কিংবা নির্দিষ্ট গেটআপ নিয়ে নিজেরাই শিল্পীরা হাসেন কিন্তু দর্শকই হাসেন না। কিন্তু এ নাটকের ক্ষেত্রে তা হয়নি। শিল্পীরা যার যার চরিত্রে এতো সিরিয়াস থেকে এমনভাবে নিজ নিজ চরিত্রে অভিনয় করেন যা দেখে দর্শক হাসেন। অনিমেষ আইচের এই ধারাবাহিকের এ বিষয়টাই আমার কাছে ভালোলেগেছে।’ নির্মাতা অনিমেষ আইচ জানান প্রতি বৃহস্পতি, শুক্র ও শনিবার রাত বাংলাভিশনে রাত নয়টায় প্রচার হয়। নাটকটির রচয়িতাও অনিমেষ আইচ। ছবি : গোলাম সাব্বির।