উল্টো হারতে বসেছে স্বাগতিক ইংল্যান্ড

উল্টো হারতে বসেছে স্বাগতিক ইংল্যান্ড

একেই বলে টেস্ট। ৫ দিনের লম্বা একটি ম্যাচ হলেও, হাঁড়ের অস্থি-মজ্জায় যেমন স্বাদ মিশে থাকে, টেস্টের প্রতিটি সেশনেও তেমন আলাদা আলাদা মজা টের পাওয়া যায়। অ্যাশেজের প্রথম ম্যাচেই সেই মজাটা টের পাচ্ছে ক্রিকেট সমর্থকরা। কোনো নির্দিষ্ট দলের সমর্থক নয়, তবে ক্রিকেটকে যারা তাড়িয়ে তাড়িয়ে উপভোগ করতে চান, তাদের জন্য এক আদর্শ ক্রিকেট ম্যাচ এজবাস্টন টেস্ট।

ম্যাচের শুরুতেই টস জিতে ব্যাট করতে নামা অস্ট্রেলিয়ার ওপর যেভাবে চড়াও হয়েছিল ইংলিশ বোলাররা, তখন কে ভেবেছিল, ৫ম দিন তথা ম্যাচের একেবারে শেষে এসে দাবার গুটির মত উল্টে দিতে পারে অস্ট্রেলিয়া! ভাবতে পারেনি বলেই তো এতটা মজা পাচ্ছেন ক্রিকেটপ্রেমীরা।


তবে এসবই স্টিভেন স্মিথের কল্যাণে। সাবেক এই অসি অধিনায়কের দুই ইনিংসেই সেঞ্চুরির কল্যানে অস্ট্রেলিয়াকে লড়াইয়ে ধরে রাখে এবং শেষ পর্যন্ত চতুর্থ ইনিংসে ইংল্যান্ডের সামনে জয়ের জন্য ৩৯৮ রানের বিশাল লক্ষ্য বেধে দিতে পেরেছে।

অসিদের পরিকল্পনা অনুযায়ী’ই যেন টেস্টের গতিপথ নির্ধারিত হয়েছে। ৩৯৮ রানের লক্ষ্য বেধে দেয়ার পর চতুর্থ ইনিংসে এসে ইংলিশ ব্যাটসম্যানদের এমনভাবে চেপে ধরেছে অসি বোলাররা, তাতে এখন চোখে সর্ষে ফুল দেখতে শুরু করেছে স্বাগতিকরা। শুধু তাই নয়, নিশ্চিত পরাজয়ের মুখে এসে দাঁড়িয়েছে তারা।

যদি না কোনো মিরাকল ঘটে, তাহলে ইংল্যান্ডকে হয়তো পরাজয় থেকে বাঁচাতে পারবে। কিন্তু আপাতঃ দৃষ্টিতে যা দেখা যাচ্ছে, তাতে স্বাগতিকদের ললাটে পরাজয়ের লিখন খণ্ডানোর সাধ্য আর কারও নেই।

৯৭ রানের মধ্যেই ৭ উইকেট হারিয়ে বসেছে ইংল্যান্ড। কোনো ব্যাটসম্যানই দাঁড়াতে পারছে না অস্ট্রেলিয়ান স্পিনার নাথান লায়ন এবং পেসার প্যাট কামিন্সের বোলিংয়ের সামনে। এই দুই বোলারই ভাগ করে নিয়েছেন ৭ উইকেট। লায়ন ৪টি এবং কামিন্স ৩টি।

৩৯৮ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে ১৯ রানের জুটি গড়েন ইংল্যান্ডের দুই ওপেনার ররি বার্নস এবং জেসন রয়। ১১ রান করে ররি বার্নস আউট হওয়ার পর জেসন রয় আউট হন ২৮ রান করে। এরপর অধিনায়ক জো রুটও করেন ২৮ রান।

জো ড্যানলি ১১ রান করে আউট হয়ে যান। জস বাটলার সাজঘরে ফেরেন মাত্র ১ রান করে। বেন স্টোকস ৬ এবং জনি বেয়ারেস্ট আউট হন ৬ রান করে।

এ রিপোর্ট লেখার সময় অস্ট্রেলিয়ার রান ৪২ ওভারে ১২০। ২ রানে মঈন আলি এবং ১৭ রানে ব্যাট করছেন ক্রিস ওকস। জয়ের জন্য এখনও ২৭৮ রান করতে হবে ইংল্যান্ডকে। হাতে আছে ৩ উইকেট এবং আজ দিনে এখনও ৫৫ ওভার বাকি।