ইরানের বিরুদ্ধে হ্যাকিংয়ের অভিযোগ মাইক্রোসফটের

ইরানের বিরুদ্ধে হ্যাকিংয়ের অভিযোগ মাইক্রোসফটের

২০২০ সালে অনুষ্ঠেয় মার্কিন নির্বাচনের প্রচারণা শুরুর আগেই ইরানের বিরুদ্ধে হ্যাকিংয়ের অভিযোগ এনেছে যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক কম্পিউটার প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান মাইক্রোসফট।


শুক্রবার (৪ অক্টোবর) নিজস্ব ব্লগ সাইটে দেওয়া এক পোস্টে এ অভিযোগের কথা জানায় মাইক্রোসফট।

পোস্টে বলা হয়, আগস্ট থেকে সেপ্টেম্বরের মধ্যেই অন্তত ৩০ দিন অনেক বেশকিছু মার্কিন নাগরিকের ই-মেইল অ্যাকাউন্টে প্রায় দুই হাজার ৭শ’ বার অনুপ্রবেশের চেষ্টা করেছে ‘ফসফরাস’ নামে একটি গ্রুপ। যার মধ্যে ২৪১ জনের অ্যাকাউন্টের ব্যক্তিগত তথ্য হাতিয়েও নিয়েছে তারা। হ্যাকিংয়ের শিকার হওয়া ওই অ্যাকাউন্টগুলো তেমন সুরক্ষিত নয় বলেও জানিয়েছে সংস্থাটি।

মাইক্রোসফটের দাবি, ২০২০ সালে অনুষ্ঠেয় মার্কিন নির্বাচনকে সামনে রেখেই গ্রাহকদের আগ্রহের বিষয়বস্তু ও ব্যক্তিগত তথ্য হাতিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করেছে ফসফরাস। এদের মধ্যে নির্বাচনের ক্যাম্পেইনের সঙ্গে জড়িত কয়েকজনের অ্যাকাউন্ট ছিল বলে জানা গেছে।

তবে এখনো বেশিদূর এগোতে পারেনি ইরান সরকার পরিচালিত ওই হ্যাকিং গ্রুপটি। ফসফরাসের পাশাপাশি এপিটি-৩৫, চার্মিং কিটেন এবং অ্যাজাক্স, এমন বেশকিছু নামেই পরিচিত ওই হ্যাকিং গ্রুপটি।

তবে এখন পর্যন্ত হ্যাকিংয়ের বিষয়ে মুখ খোলেনি ইরান। মাইক্রোসফটের আনা অভিযোগ অস্বীকারও করেনি তেহরান। 

এদিকে, ২০১৫ সালে করা পারমাণবিক চুক্তি থেকে যুক্তরাষ্ট্র বের হয়ে যাওয়ায় ২০১৮ সাল থেকেই ওয়াশিংটনের সঙ্গে সম্পর্ক ভালো যাচ্ছেনা ইরানের। সম্প্রতি দুই দেশের মধ্যকার কূটনৈতিক সম্পর্কের অবনতিও পৌঁছেছে চরমে।

গত ২৫ সেপ্টেম্বর জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠকে ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি বলেছিলেন, তেহরানের ওপর থেকে অর্থনৈতিক ও বাণিজ্যিক নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার না করা পর্যন্ত ওয়াশিংটনের সঙ্গে কোনো ধরনের আলোচনায় যাবেনা তার দেশ।