ইতালির বড় জয়, ইউরো নিশ্চিত স্পেনের

ইতালির বড় জয়, ইউরো নিশ্চিত স্পেনের

ইউরো ২০২০'র মূল পর্ব নিশ্চিত করতে স্রেফ ড্র হলেই চলতো স্পেনের, সুইডেনের দরকার ছিলো পূর্ণ ৩ পয়েন্ট। এ সমীকরণ মাথায় রেখে খেলতে নেমে নির্ধারিত ৯০ মিনিট পর্যন্ত এগিয়ে ছিলো সুইডেনই। কিন্তু একদম শেষমুহূর্তে গিয়ে দরকারি ১ পয়েন্ট ঠিকই বাগিয়ে নিয়েছে রবার্তো মোরেনোর শিষ্যরা।

সুইডেনের ঘরের মাঠে খেলতে গিয়ে শুরু থেকেই আধিপত্য বিস্তার করে খেলতে থাকে স্পেন। কিন্তু কাজের কাজ গোলটাই করতে পারেনি তারা। গোলশূন্য থেকে যায় ম্যাচের প্রথমার্ধ।


দ্বিতীয়ার্ধে ফিরে ম্যাচের ধারার বিপরীতে গোল করে বসে সুইডেন। প্রাণপন চেষ্টা করেও মার্কাস বার্গের প্রচেষ্টা রুখতে পারেননি স্প্যানিশ গোলরক্ষক ডেভিড ডি গিয়া। প্রথমে একবার ফিরিয়ে দিলেও, দ্বিতীয় চেষ্টায় বল জালে জড়িয়ে দলকে এগিয়ে দেন সুইডিশ মিডফিল্ডার মার্কাস।

এই এক গোলের লিডেই পূর্ণ ৩ পয়েন্ট প্রায় নিশ্চিত করে ফেলেছিল স্বাগতিকরা। কিন্তু তাদের কাছ থেকে জয় ছিনিয়ে নেন রদ্রিগো। নির্ধারিত ৯০ মিনিট শেষে অতিরিক্ত যোগ করা সময়ের দ্বিতীয় মিনিটে ফাবিয়ানের বাড়ানো বল ধরে সমতাসূচক গোলটি করেন রদ্রিগো।

স্বস্তির এ ড্রয়ে পাওয়া ১ পয়েন্টেই আগামী বছরের ইউরো নিশ্চিত হয়ে গেছে স্পেনের। এফ গ্রুপে ৮ ম্যাচে ৬ জয় ও ২ ড্রতে তাদের সংগ্রহ ২০ পয়েন্ট। সমান ম্যাচে ১৫ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে সুইডেন। তবে ১৪ পয়েন্ট নিয়ে তাদের ঘাড়েই নিঃশ্বাস ফেলছে রোমানিয়া।

এদিকে দিনের অন্য ম্যাচে লিচেস্টেইনকে ৫-০ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে আগের রাউন্ডেই ইউরো নিশ্চিত করা ইতালি। প্রতিপক্ষের মাঠে খেলতে গিয়ে দ্বিতীয় মিনিটেই প্রথম গোলটি করেন জুভেন্টাসের ফরোয়ার্ড ফেডরিক বার্নার্ডেস্কি।


ইতালির বাকি ৪টি গোলই হয় দ্বিতীয়ার্ধের শেষ ১৫ মিনিটে। জোড়া গোল করেন আন্দ্রে বেলোত্তি। ৭০ মিনিটের মাথায় ম্যাচের দ্বিতীয় এবং অতিরক্তি যোগ করা সময়ের দ্বিতীয় মিনিটে পঞ্চম গোলটি করেন তিনি। এর মাঝে ৭৭ মিনিটে অ্যালেসিও রোমাগনোলি এবং ৮২ মিনিটে স্কোরশিটে নাম লেখান স্টিফেন এল শারাওয়ে।