ইচ্ছে পূরণ হলো দু’জনের

ইচ্ছে পূরণ হলো দু’জনের

বিনোদন প্রতিবেদক :  বৃহত্তর খুলনার মেয়ে পপি ও তমা মির্জা। দু’জনই অভিনয়ের স্বীকৃতিস্বরূপ পেয়েছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার। পপি পেয়েছেন তিনবার, তমা মির্জা পেয়েছেন একবার। চলচ্চিত্রে জুনিয়র নায়িকাদের চিত্রনায়িকা পপি সবসময়ই আদর ¯েœহ করেন পপি। ঠিক তেমনি তমা মির্জাকেও পপি আদর, ¯েœহ করেন। পাশাপাশি তারসঙ্গে যখনই পপির দেখা হয় তখনই তমা মির্জাকে পপি তার কাজের জন্য উৎসাহ, অনুপ্রেরণা দিয়ে থাকেন। চিত্রনায়িকা তমা মির্জার দীর্ঘদিনের ইচ্ছে মৌসুমী, শাবনূর, পপি, পূর্ণিমার সঙ্গে একই সিনেমায় অভিনয় করার। পপির সঙ্গে একই সিনেমায় অভিনয় করে তমা মির্জার সেই ইচ্ছেও পূরণ হলো। আরিফের নির্দেশনায় ‘কাঠগড়ায় শরৎচন্দ্র’ সিনেমাতে অভিনয় করেছেন পপি ও তমা মির্জা। এই সিনেমায় পপি অভিনয় করেছেন পার্বতী চরিত্রে এবং তমা মির্জা অভিনয় করেছেন অচলা চরিত্রে। এরইমধ্যে সিনেমাটির অনেকাংশের কাজ শেষ হয়েছে। পপি বলেন,‘ তমাকে আমি ভীষণ ¯েœহ করি।

 একই এলাকার বলে বিষয়টি এমন নয়, তমার আচার ব্যবহার, চাল চলন আমাকে সবসসময়ই মুগ্ধ করে। তাছাড়া অভিনয়েও সে ভালো করছে। তার জন্য সবসময়ই আমার শুভ কামনা থাকবে।’ তমা মির্জা বলেন,‘ পপি আপুর সঙ্গে আমার অনেক বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক। তিনি খুব মিশুক প্রকৃতির মানুষ। বাংলাদেশের নায়িকাদের মধ্যে পপি আপু আমার অন্যতম প্রিয় একজন নায়িকা। ইচ্ছে ছিলো তার সঙ্গে কাজ করার। অবশেষে আমার সেই সৌভাগ্য হলো তারসঙ্গে স্ক্রিন শেয়ার করার। তিনি সবসময়ই আমাকে অনেক উৎসাহ দেন, এটা আমার জন্য সত্যিই অনেক ভালোলাগার। দোয়া করি পপি আপু সবসময়ই যেন ভালো থাকেন।’ পপির বাইরে তমা মির্জা পূর্ণিমার সঙ্গে স্টেজ শো’তে অংশ নিয়েছেন। এদিকে নতুন বছরে এখনো পপি কিংবা তমা নতুন কোন কাজ শুরু করেননি। পপি শিগগিরই শুরু করবেন কাজী আমিরুল ইসলাম শোভা পরিচালিত ‘সেভ লাইফ’ সিনেমার কাজ। তমা মির্জাও উপস্থাপনায় ‘প্রিয়তমার প্রিয়মুখ’ প্রতি শনিবার সন্ধ্যা ৭.৪৫ মিনিটে দেশ টিভিতে নিয়মিত প্রচার হচ্ছে। সাদেক সিদ্দিকী নির্দেশিত পপি অভিনীত ‘সাহসী যোদ্ধা’ সিনেমার কাজও প্রায় শেষ। এতে পপির বিপরীতে আছেন আনি খান। চলতি বছরের শুরুতে শুরু হবার কথা রয়েছে বুলবুল বিশ্বাসের ‘কাটপিস’ সিনেমার কাজ। এতে পপির বিপরীতে কে কাজ করবেন তা এখনো চুড়ান্ত হয়নি।