আ.লীগ নেতার মৃত্যু, স্ট্রোকের রোগীকে ডায়রিয়ার চিকিৎসা!

আ.লীগ নেতার মৃত্যু, স্ট্রোকের রোগীকে ডায়রিয়ার চিকিৎসা!

রায়পুর উপজেলার মরকম আলী সর্দার বাড়ির সামনের দোকানে চা পান করছিলেন আলী হায়দার। এ সময় হঠাৎ মাটিতে লুটে পড়েন তিনি। পরে তাকে রায়পুর মাতৃছায়া হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। প্রতিষ্ঠানটির চিকিৎসক সৈয়দ সাখাওয়াত হোসেন রোগীকে দেখে ডায়রিয়ায় আক্রান্ত বলে চিকিৎসা দেয়। স্ট্রোকের রোগীকে ডায়রিয়ার চিকিৎসা দেয়ায় তিনি মারা গেছেন বলে অভিযোগ করেছেন নিহতের স্বজন মো. হারুন। সোমবার (২২ জুলাই) রাত ১০টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

রোগীর আরেক স্বজন জানান, আলী হায়দারের অবস্থার অবনতি হলে তাকে চাঁদপুরের মতলব ডায়রিয়া নিরাময় কেন্দ্রে রেফার করেন। সেখানে তাকে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা।


জানা গেছে, নিহত হায়দার রায়পুর উপজেলার সোনাপুর ইউনিয়নের রাখালিয়া গ্রামের বাসিন্দা ও ৩ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক। 
এ ব্যাপারে রায়পুর মাতৃছায়া হাসপাতালের প্রশাসনিক কর্মকর্তা তুহিন চৌধুরী বলেন, ‘ডায়রিয়া রোগীকে হাসপাতালে নিয়ে আসা হলে তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়। পরে তাকে মতলব ডায়রিয়া নিরাময় কেন্দ্রে পাঠানো হয়েছে। রাতে হঠাৎ অ্যাম্বুলেন্স নিয়ে ১০-১৫ জন লোক এসে হাসপাতাল ভাঙচুর করে। তারা ভাঙচুর করে হাসপাতালে দুই লক্ষাধিক টাকা ক্ষতি করেছে। আমরা মামলা করব।’

তিনি বলেন, ‘নিহতের স্বজনরা মরদেহ নিয়ে রায়পুরের মাতৃছায়া হাসপাতালে এসে দরজা, জানালার গ্লাসসহ আসবাবপত্র ভাঙচুর চালায়। এ সময় নিহতের ছেলে সোহেল মাহমুদের হাত গ্লাসে কাটা পড়ে প্রচুর রক্তক্ষরণ হয়। পরে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।’

রায়পুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. তোতা মিয়া জানান, ভুল চিকিৎসায় রোগী মৃত্যুর অভিযোগ এনে স্বজনরা হাসপাতালে ভাঙচুর চালিয়েছে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এ ঘটনার তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।