আল-বাগদাদীর মৃত্যু নিয়ে সংশয় প্রকাশ বাশার আল আসাদের

আল-বাগদাদীর মৃত্যু নিয়ে সংশয় প্রকাশ বাশার আল আসাদের

সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল-আসাদ উগ্র জঙ্গি গোষ্ঠী ইসলামিক স্টেট (আইএস) প্রধান আবু বকর আল-বাগদাদীর মৃত্যুর ব্যাপারে সংশয় প্রকাশ করেছেন। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প গত মাসে আল-বাগদাদীকে হত্যা করে বিশ্বের গণমাধ্যমে তার মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করে দিয়েছেন। কিন্তু প্রেসিডেন্ট আসাদ বলছেন, আল-বাগদাদী হয়তো কোথায় লুকিয়ে আছেন।
রাশিয়ার ইংরেজি ভাষার নিউজ চ্যানেল রাশিয়া টুডে’কে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট আল-বাগদাদীকে হত্যার খবর প্রচারকে ‘ফাঁদ’ বলে অভিহিত করেন। তিনি বলেন, মার্কিন নীতির সঙ্গে হলিউডের সিনেমার কোনও পার্থক্য নেই। পুরো বিষয়টিই কল্পনার জগতের মতো। এমনকি এর মধ্যে বিজ্ঞানের লেশমাত্র নেই; পুরোটাই অলীক কল্পনা।
প্রেসিডেন্ট আসাদ ধারনা করে বলেন, আইএস প্রধানকে অপহরণ করা হয়েছে বা কোথাও লুকিয়ে আছে বা অপারেশন করে তার মুখায়ব পরিবর্তন করে ফেলা হয়েছে।
মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প গত মাসে ঘোষণা করেন যে, উত্তর সিরিয়ায় আইএস নেতা আল-বাগদাদীকে হত্যা করা হয়েছে। আল-বাগদাদীর মৃতদেহের কোনও ছবি যুক্তরাষ্ট্র প্রকাশ করেনি বরং বলেছে, তার দেহ সাগরে নিক্ষেপ করা হয়েছে।
আল-বাগদাদীর মৃত্যু সম্পর্কে তাৎক্ষণিকভাবে সংশয় প্রকাশ করেছিল রাশিয়া। মস্কো বলেছিল, যুক্তরাষ্ট্র নিজেই এই জঙ্গি নেতার মৃত্যু সম্পর্কে যেসব তথ্য দিয়েছে তা পরস্পরবিরোধী। তুরস্ক অবশ্য দাবি করেছে, ওয়াশিংটন ও আঙ্কারার মধ্যে গোয়েন্দা সহযোগিতার ভিত্তিতে আল-বাগদাদীকে হত্যা করা হয়েছে।
সাক্ষাৎকারে সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট আসাদ তুর্কি প্রেসিডেন্ট রেচেপ তায়েপ এরদোয়ানের তীব্র সমালোচনা করে তুরস্ককে সিরিয়ার শত্রু হিসেবে অভিহিত করেন। সিরিয়ার উত্তরাঞ্চলে তুর্কি সেনা উপস্থিতির কথা উল্লেখ করে বাশার আল-আসাদ বলেন, সিরিয়া অভ্যন্তরে সেনা পাঠিয়ে তুরস্ক নিজেই নিজেকে সিরিয়ার শত্রুতে পরিণত করেছে।