আমার ছেলে নিষ্পাপ, বললেন পাণ্ডিয়ার বাবা

আমার ছেলে নিষ্পাপ, বললেন পাণ্ডিয়ার বাবা

সিডনিতে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে আজ থেকে ওয়ানডে সিরিজে মাঠে নেমেছে ভারত। এদিকে মাঠের বাইরে চলছে বিতর্ক। একটি টিভি অনুষ্ঠানে নারীদের নিয়ে অশালীন মন্তব্য করে নিষিদ্ধ হয়েছেন হার্দিক পাণ্ডিয়া ও লোকেশ রাহুল। তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত যা বহাল থাকবে। এ নিয়ে গোটা ভারতজুড়েই সমালোচনা চলছে দুই ক্রিকেটারকে নিয়ে। হার্দিক পাণ্ডিয়ার বাবা খুব স্বাভাবিকভাবেই সমালোচকদের দলে নেই। তাঁর দাবি, আমার ছেলে নিষ্পাপ।

২৫ বছর বয়সী এই অলরাউন্ডারের বাবা হিমাংশু এত দিন বিষয়টি নিয়ে চুপ করেই ছিলেন। কিন্তু ছেলে নিষেধাজ্ঞা পাওয়ার পর আর মুখ বন্ধ রাখতে পারেননি। ভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে তিনি বলেছেন, হার্দিকের মন্তব্য নিয়ে এত নাড়াচাড়া না করাই উচিত মানুষের। কারণ দর্শকদের মজা দিতেই রসিকতার ছলে কথাগুলো বলা হয়েছে। সংবাদমাধ্যম ‘মিড ডে’কে হিমাংশু বলেন, ‘তাঁর মন্তব্য নিয়ে মানুষের এত মেতে থাকা উচিত বলে আমি মনে করি না। সে শুধু দর্শকদের মজা দিতে চেয়েছিল। তাই কথাগুলো এত গুরুত্ব দিয়ে কিংবা নেতিবাচক চোখে না দেখাই ভালো। সে নিষ্পাপ এবং মজা করতে ভীষণ পছন্দ করে।’

পাণ্ডিয়া নিজের মন্তব্যের জন্য এর আগে ক্ষমা চেয়েছেন। এ কথাও বলেছেন, অনুষ্ঠানের ধরনের সঙ্গে তাল মেলাতে গিয়ে এমনটি ঘটেছে। এর আগে টেলিভিশনে ‘কফি উইথ করণ’ অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত হয়েছিলেন পাণ্ডিয়া ও রাহুল। সেখানে কিছু প্রশ্নের জবাবে নারীদের প্রতি অশালীন মন্তব্যের অভিযোগ উঠেছে তাঁদের বিপক্ষে। সমালোচনা চলছে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমেও। এ নিয়ে ভারতের অধিনায়ক বিরাট কোহলি পর্যন্ত বলেছেন দুই ক্রিকেটারের মন্তব্য ‘অগ্রহণযোগ্য’। আর বিসিসিআই প্রথমে কারণ দর্শানো নোটিশ দেওয়ার পর ক্রিকেটারদের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করল।