আবহাওয়ার বিরূপ আচরণ

আবহাওয়ার বিরূপ আচরণ

তীব্র শৈত্য প্রবাহে দেশের সর্ব উত্তরের জেলা পঞ্চগড়ে সোমবারে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসে নেমে এসেছে। যা দেশের ইতিহাসে সর্বনিম্ন তাপমাত্রার নতুন রেকর্ড স্থাপন করেছে। হিমালয়ের খুব কাছাকাছি হওয়ায় এ জেলায় শীতের প্রকোপ তুলনামূলকভাবে বেশি। তীব্র শীতের কারণে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে জনজীবন। বাংলাদেশে এর আগে এত কম তাপমাত্রার কোনো রেকর্ড নেই। সৈয়দপুর ও নীলফামারী জেলায় সোমবার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস। শুধু বাংলাদেশে শৈত্য প্রবাহ নয়, জলবায়ুর বৈপরীত্য লক্ষ্যণীয়। উত্তর আমেরিকার কানাডায় তাপমাত্রা নেমে এসেছে হিমাংকের ৫০ ডিগ্রি নিচে।

অন্যদিকে স্মরণকালের অন্যতম বড় তুষার ঝড়ে যখন কাবু যুক্তরাষ্ট্রের পূর্ব উপকূল; অষ্ট্রেলিয়ার শহর সিডনিতে তখন রেকর্ড উষ্ণতা পুড়িয়ে দিচ্ছে। ৭ জানুয়ারি অপেরা হাউসের শহরটিতে তাপমাত্রার পারদ ছুঁয়েছে ৪৭ দশমিক ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াসে, যে গত আশি বছরের মধ্যে এ অঞ্চলের সর্বোচ্চ তাপমাত্রার রেকর্ড। স্থানীয় সময় সকাল ১০টায় তাপমাত্রা ৪০ ডিগ্রি ছাড়িয়ে গেলে আন্তর্জাতিক টেনিস টুর্নামেন্টের ম্যাচ বাতিল করা হয়। প্রকৃতির এ বিরূপ আচরণ আজকের নয়, গত কয়েক দশক ধরেই লক্ষ্যযোগ্য মাত্রায় তা জানান দিচ্ছে। বিশ্বের সব দেশই প্রকৃতির এ বিচিত্র আচরণের শিকার হচ্ছে প্রায় সমানভাবে। সারা পৃথিবী উদ্বিগ্ন বিষয়টি নিয়ে। জলবায়ু পরিবর্তনজনিত সমস্যা নির্দিষ্ট কোনো দেশের একার সমস্যা নয়, এ সমস্যা সারা পৃথিবীর। তাই এ সমস্যা মোকাবিলায় সহযোগিতার অঙ্গীকারে দৃঢ় থাকতে হবে ধনী-গরিব সব দেশকেই।