আবরারের পরিবারকে ১০ লাখ টাকা দেয়ার নির্দেশ বহাল

আবরারের পরিবারকে ১০ লাখ টাকা দেয়ার নির্দেশ বহাল

বাসচাপায় বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালসের (বিইউপি) শিক্ষার্থী আবরার আহমেদ চৌধুরী নিহত হওয়ার ঘটনায় তার পরিবারকে জরুরি খরচ বাবদ ১০ লাখ টাকা দিতে হাইকোর্টের আদেশ বহাল রেখেছেন আপিল বিভাগ।

হাইকোর্টেরে আদেশ স্থগিত চেয়ে সুপ্রভাত পরিবহনের আবেদন মঙ্গলবার (০৯ এপ্রিল) প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বে চার বিচারপতির আপিল বেঞ্চ খারিজ করে এ আদেশ দেন।

আদালতে সুপ্রভাত পরিবহনের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী এ কে এম বদরুদ্দোজা। রিটকারী পক্ষে আইনজীবী ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল ছিলেন।

পরে রুহুল কুদ্দুস কাজল বলেন, হাইকোর্টের আদেশ বহাল থাকায় আবরারের পরিবারকে ১০ লাখ দিতেই হবে।

এর আগে বুধবার (২০ মার্চ) এক রিট আবেদনের শুনানি নিয়ে বিচারপতি নজরুল ইসলাম তালুকদার ও বিচারপতি কে এম হাফিজুল আলমের হাইকোর্ট বেঞ্চ আবরারের পরিবারকে কেন ৫ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ দেয়া হবে না, তা জানতে চেয়ে আদেশ দিয়েছিলেন। এ রুলের বিরুদ্ধে আপিল বিভাগে আবেদন করে সুপ্রভাত পরিবহন।

আদালতে রিটটি দায়ের করেন ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল। ওইদিন তিনি বলেন, সাতদিনের মধ্যে আবরারের পরিবারকে জরুরি খরচ বাবদ ১০ লাখ টাকা দেওয়ার জন্য সুপ্রভাত পরিবহনকে নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট।

গত ১৯ মার্চ সকালে রাজধানীর প্রগতি সরণির নর্দ্দায় সুপ্রভাত পরিবহনের একটি বাসের চাপায় বিইউপির শিক্ষার্থী আবরার আহম্মেদ চৌধুরী নিহত হন। পরে সড়ক অবরোধ করে আন্দোলন শুরু করেন শিক্ষার্থীরা।