আগৈলঝাড়ায় গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু

আগৈলঝাড়ায় গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু

বরিশাল প্রতিনিধি : বরিশালের আগৈলঝাড়ায় নার্গিস আক্তার নামে এক গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। গতকাল শুক্রবার সকালে তার মরদেহ ময়না তদন্তের জন্য বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এর আগে বৃহস্পতিবার দিনগত রাতে উপজেলার বাগধা গ্রাম থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। স্থানীয় ও থানা পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ওই গ্রামের দাউদ হাসানের সঙ্গে আট মাস আগে পার্শ্ববর্তী উজিরপুর উপজেলার পূর্ব সাতলা গ্রামের নান্নু পাইকের মেয়ে নার্গিসের বিয়ে হয়। স্বামী দাউদ ঢাকায় চাকরি করায় নার্গিস শ্বশুরবাড়িতেই থাকতেন। শ্বশুরবাড়ির লোকজন বৃহস্পতিবার রাতে নার্গিসকে উপজেলা হাসপাতালের জরুরি বিভাগের নেওয়া হয়।  পরে ওই হাসপাতালের দায়িত্বরত চিকিৎসক ডা. অমৃত  জানান, অনেক আগেই নার্গিসের মৃত্যু হয়েছে।

এ খবর শুনে নার্গিসের শ্বশুরবাড়ির লোকজন হাসপাতাল থেকে মরদেহ নিয়ে দ্রুত সটকে পড়ে। খবর পেয়ে উপ-পরিদর্শক (এসআই) নাসির উদ্দিন দক্ষিণ বাগধা গ্রামে গিয়ে নার্গিসের মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসেন। এদিকে শ্বশুরবাড়ির লোকজন নার্গিস ঘরের আড়ার সঙ্গে গলায় রশি দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন বলে দাবি করলেও তারা মৃত্যুর পর থেকে আত্মগোপনে রয়েছেন। আগৈলঝাড়া থানার এসআই নাসির উদ্দিন  জানান, গৃহবধূর মরদেহ রাতেই উদ্ধার করে তিনি থানায় নিয়ে আসেন। এ ঘটনায় প্রাথমিকভাবে একটি ইউডি মামলা দায়ের করা হয়েছে। আগৈলঝাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আফজাল হোসেন জানান, নার্গিসের মরদেহ উদ্ধার করে শুক্রবার মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়না তদন্তের প্রতিবেদন পেলে পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।