অবসর নয়, আপাতত মাশরাফির লক্ষ্য দেশে ফেরা!

অবসর নয়, আপাতত মাশরাফির লক্ষ্য দেশে ফেরা!

এ ম্যাচের আগে যত কথা তাকে নিয়েই। বিশ্বকাপে তার জীবনের শেষ ম্যাচ। শেষবারের মতো ভালো করার ম্যাচ। এমন এক খেলার আগে কাল বৃহস্পতিবার মাঠে এসেও প্র্যাকটিস করেননি। তার নিজের বিশ্বকাপ ক্যারিয়ারের শেষ ম্যাচের আগের দিন প্রেস কনফারেন্সেও কথা বলেননি।

এমনকি শুক্রবারের ম্যাচে খেলবেন- এমন নিশ্চয়তাও ছিল না। পরে বৃহস্পতিবার গভীর রাতে বোর্ড সভাপতি নাজমুল হাসান পাপনের অনুরোধে সিদ্ধান্ত পাল্টে খেলতে নামেন।


অনেকে আবার না জেনে, না বুঝে আজকের ম্যাচটিকে তার ক্যারিয়ারের শেষ ম্যাচ ভেবে বসেছিলেন। দেশে নাকি গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়েছিল, শুক্রবার মাশরাফি হয়তো অবসরের ঘোষণা দিয়ে ফেলতে পারেন বা দেবেন।

সামাজিক যোগামাধ্যম আর টেলিফোনে রাজধানী ঢাকা, বন্দর নগরী চট্টগ্রাম, খুলনা ও সিলেটসহ প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে অনেকেরই জিজ্ঞাসা- ভাই, মাশরাফি ভাই কি এ ম্যাচ খেলে আজই অবসরের ঘোষণা দেবেন?

এমনকি অনেকে নাকি শেষ মুহূর্ত পর্যন্ত অপেক্ষায় ছিলেন, কি জানি শেষ মুহুর্তে পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠান বা প্রেস কনফারেন্সে না আবার অবসরের ঘোষণা দিয়ে বসেন।

কিন্তু মাশরাফি কিছুই বলেননি। আজকের খেলা শেষে রমিজ রাজা তাকে জিজ্ঞেস করেছিলেন ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা কী?

আনুষ্ঠানিক সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশের এক সিনিয়র সাংবাদিক সরাসরি জানতে চাইলেন, মাশরাফি, বিশ্বকাপ শেষ। এখন আপনার লক্ষ্য ও পরিকল্পনা কী?

মাশরাফির রসিকতায় মেশানো জবাব, ‘এখন লক্ষ্য একটাই বাড়ী ফিরে যাওয়া। এখন বাড়ী যাব আগে।' তারপর কি যেন বলতে চেয়েও বলেননি মাশরাফি।

উল্লেখ্য, রোববার বাংলাদেশ সময় বিকাল ৫টা ২০ মিনিট রাজধানীর হযরত শাহজালাল (র) বিমানবন্দরে অবতরণ করবে টাইগাররা।

এর আগে লন্ডন থেকে শনিবার স্থানীয় সময় সকাল ১০টা ৩০ মিনিট (বাংলাদেশ সময় বিকেল ৩টা ৩০ মিনিটে) এমিরেটসের ফ্লাইটে বাংলাদেশের উদ্দেশ্যে রওনা হবে দল। যাত্রাপথে দুবাইতে ট্রানজিট করে পরে ঢাকায় আসবেন তারা।