হারাগাছে জাল ব্যান্ডরোলযুক্ত ঘড়ি বিড়িসহ দুইজন আটক

 হারাগাছে জাল ব্যান্ডরোলযুক্ত ঘড়ি বিড়িসহ দুইজন আটক

কাউনিয়া (রংপুর) প্রতিনিধি: রংপুরের হারাগাছে জালব্যান্ডরোল লাগানো বিপুল পরিমান ঘড়ি বিড়ি জব্দ করেছে আরপিএমপি পুলিশ। এ সময় নকল ব্যান্ডরোল যুক্ত বিড়ির মালিক ও প্যাকিং শ্রমিককে গ্রেফতার করে পুলিশ। বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে হারাগাছ পৌর এলাকার পাইকারবাজার গ্রামে বিড়ি ফ্যাক্টরী থেকে এসব বিড়ি জব্দ ও মালিক ও শ্রমিককে আটক করা হয়। আরপিএমপি হারাগাছ থানার ওসি এ.কে.এম নাজমুল কাদের বলেন, রংপুর কাস্টমস এক্সাইজ ও ভ্যাট হারাগাছ সার্কেলের আওতাধীন পাইকারবাজার গ্রাম এলাকার ঘড়ি বিড়ি ফ্যাক্টরীর প্রোপ্রাইটার শরিফুল ইসলাম দীর্ঘদিন ধরে বিপুল পরিমান রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে জাল ব্যান্ডরোল লাগিয়ে বিড়ির প্যাকেট বাজারজাত করে আসছে।

ওসি বলেন, বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে ঘড়ি বিড়ি প্যাকেটে জাল ব্যান্ডরোল লাগানো হচ্ছে। গোয়েন্দার এমন তথ্যের ভিত্তিতে রাত ৩টার দিকে তিনি সহ এসআই জোতীষ চন্দ্র বর্মণ, এএসআই আতাউরসহ সঙ্গিও ফোর্স অভিযান চালিয়ে শরিফুল ইসলামের নিজবাড়ী থেকে প্রায় ২১ হাজার ৩৬৪ টাকা মুল্যে জাল ব্যান্ডরোল লাগানো ৭০ হাজার বিড়ির শলাকা জব্দ করা হয়। এসময় ঘটনাস্থল থেকে বিড়ির মালিক শরিফুল ও জালব্যান্ডরোল লাগানো প্যাকিং শ্রমিক রিপন মিয়াকে আটক করা হয়। শরিফুল পাইকার বাজার গ্রামের মৃত মফিজ উদ্দিনের ছেলে ও রিপন মিয়া নতুনবাজার গ্রামের আনারুলের ছেলে।

রংপুর মেট্টোপলিটন পুলিশের হারাগাছ থানার ওসি এ.কে.এম নাজমুল কাদের বলেন, এ ব্যাপারে পুলিশ বাদী হয়ে জাল ব্যান্ডরোল মজুদ ও ব্যবহারের সহিত জড়িত থেকে সরকারি রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে অবৈধভাবে ব্যবসা করার অপরাধে বিশেষ ক্ষমতা আইনের ২৫-ক (ক) (খ) ধারায় ঘড়ি ফ্যাক্টরীর মালিক শরিফুল ও শ্রমিক রিপনসহ জড়িতদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। শুক্রবার মামলায় তাদের গ্রেফতার দেখিয়ে রংপুর আদালতে পাঠানো হয়েছে।