শান্তিসূচকে পেছানো

 শান্তিসূচকে পেছানো

বিশ্ব শান্তিসূচকে (জিপিআই) নয় ধাপ অবনমন ঘটেছে বাংলাদেশের ১৬৩টি দেশের মধ্যে এবার বাংলাদেশের অবস্থান ১০১তম। গত বুধবার এ প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে অষ্ট্রেলিয়ার গবেষণা ইনস্টিটিউট ফর ইকোনমিকস অ্যান্ড পিস। প্রতিবেদনে বলা হয়, জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে বাংলাদেশ, ভারত ও চীন সূচকের নিচের অর্ধেকে অবস্থান করছে। এ তিনটি দেশের ৩৯ কোটি ৩০ লাখ মানুষ জলবায়ু পরিবর্তনে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকায় বাস করছে। ২৩টি সূচকের ভিত্তিতে বিশ্ব শান্তির এই তালিকা তৈরি করা হয়। এতে সামাজিক নিরাপত্তা, অভ্যন্তরীণ ও আন্তর্জাতিক সংঘাত এবং সামরিকীকরণের মাত্রার বিষয়গুলো বিবেচনায় নেওয়া হয়। প্রতিবেদনে বলা হয়, ২০১৯ সালের এই সূচকে বিশ্বে শান্তিপূর্ণ অবস্থার উন্নতি হয়েছে। ৮৬টি দেশ এ সময় উন্নতি করেছে আর অবনতি হয়েছে ৭৬টির।

একদিকে বিশ্বশান্তি সূচকে বাংলাদেশের এমন অবনতির বিষয়টি আমলে নেয়া যেমন অত্যন্ত জরুরি, তেমনি যেসব কারণে পরিস্থিতির অবনতি হচ্ছে তা বিচার বিশ্লেষণ করে এ থেকে সমাধানের পথ সৃষ্টি করতে হবে। সংশ্লিষ্টদের মনে রাখা দরকার, নাগরিকদের শান্তিপূর্ণ জীবন, অর্থনৈতিক মূল্য ও শান্তিপূর্ণ সমাজ গঠনে বিভিন্ন পদক্ষেপের ওপর ভিত্তি করে এই সূচক তৈরি করা হয়েছে। ফলে সমাজ গঠনের ক্ষেত্রে যেসব প্রতিবন্ধকতা আছে সেগুলো যেমন চিহ্নিত করে উদ্যোগ জারি রাখতে হবে। তেমনিভাবে শান্তিপূর্ণ জীবন যাপনের ক্ষেত্রে সংকট নিরসন করতে হবে। এবারও সবচেয়ে শান্তির দেশের সুনাম কুড়িয়েছে আইসল্যান্ড। ২০০৮ সাল থেকেই দেশটি শীর্ষ অবস্থান ধরে রেখেছে। এবার এর অবস্থানে রয়েছে নিউজিল্যান্ড, অষ্ট্রিয়া, পর্তুগাল ও ডেনমার্ক। বিশ্ব শান্তি সূচকে বাংলাদেশের অবস্থান উত্তরণে আমাদের যতদ্রুত সম্ভব প্রয়োজনীয় উদ্যোগ গ্রহণ করতে হবে।