বিএনপিকে আইট্টা কলাগাছ বললেন নৌমন্ত্রী শাজাহান

 বিএনপিকে আইট্টা কলাগাছ বললেন নৌমন্ত্রী শাজাহান

মুক্তিযুদ্ধে বিরোধিতাকারীদের কাছ থেকে দেশের মানুষ কোনোদিন কিছু পায়নি এবং ভবিষ্যতেও কিছু পাবে না বলে মন্তব্য করেছেন নৌ পরিবহনমন্ত্রী শাজাহান খান। তিনি বলেছেন, মুক্তিযুদ্ধের বিরোধী শক্তির কাছ থেকে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় দেশ পরিচালনা আশা করা বেয়াদবি ছাড়া আর কিছু নয়। কারণ ‘আইট্টা’ কলার গাছে কখনো সবরি কলা ধরে না। দেশকে রক্ষা করতে হলে রাজাকার আলবদর ও জামায়াতে ইসলামের সঙ্গে জোটবদ্ধ সংগঠন বিএনপিকে রুখতে হবে। রোববার জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বাস্তবায়ন মঞ্চ ও প্রজন্ম মঞ্চের এক মানববন্ধনে তিনি এসব কথা বলেন।

সরকারি চাকরিতে ৩০ শতাংশ কোটা অব্যাহত রাখতে দেশের সব মুক্তিযোদ্ধার সন্তানদের ঐক্যবদ্ধ হওয়ার পরামর্শ দিয়ে শাজাহান খান বলেন, মুক্তিযোদ্ধার সন্তানরা লিখিত পরীক্ষায় পাস করলেই তাদের চাকরির ব্যবস্থা করতে হবে। মুক্তিযোদ্ধার সন্তানদের মেধা একটু কম থাকলেও লিখিত পরীক্ষায় পাশ করলে তাদের চাকরির ব্যবস্থা করতে হবে। কারণ বিশ বছর পরে আর কোনো মুক্তিযোদ্ধা খুঁজে পাওয়া কঠিন হবে। তখন গুটিকয়েক মুক্তিযোদ্ধা থাকবে তারা মুক্তিযোদ্ধার চেতনা সমুন্নত রাখতে পারবে না। তিনি বলেন, মুক্তিযুদ্ধের চেতনা সমুন্নত রাখতে প্রধানমন্ত্রী ৩০ শতাংশ কোটা চালু করেছেন। দেশে পুলিশ ও বিভিন্ন ডিপার্টমেন্টে এখনো রাজাকারদের সন্তান খুঁজে পাওয়া যায়। স্বাধীনতাবিরোধী এ গোষ্ঠীর সন্তানদের নিয়ে প্রশাসন চালানো যায় না। তাদের দিয়ে প্রশাসন চালালে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ও ইতিহাস ধ্বংস হয়ে যাবে। শাজাহান খান বলেন, ভবিষ্যতে যদি বিএনপি-জামায়াত ক্ষমতায় আসে তাহলে মুক্তিযোদ্ধা কোটা, মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাস থাকবে না। তার জন্য তারা যেন এ দেশে আর রাজনীতি করতে না পারে, সামনের নির্বাচনে জয় না পায় এ জন্য ভোটের মাধ্যমে জবাব দিতে হবে। মানববন্ধনে আরও উপস্থিত ছিলেন মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাংগঠনিক সম্পাদক এ বি এম সুলতান আহমেদ, বাংলাদেশ প্রজন্ম সংসদ কেন্দ্রীয় কমান্ড কাউন্সিলের সভাপতি এ এন এম ওয়ালীউর রহমান মোল¬া, আসাদুজ্জামান দুর্জয় প্রমুখ।