ফেনীতে নিখোঁজের দু’দিন পর কিশোরের মরদেহ উদ্ধার

 ফেনীতে নিখোঁজের দু’দিন পর কিশোরের মরদেহ উদ্ধার

ফেনী প্রতিনিধি : ফেনীতে নিখোঁজের দু’দিন পর মো. রাজু (১৪) নামে এক কিশোর রিকশা চালকের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বুধবার দুপুরে শহরের সুলতানপুর এলাকা থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়। স্থানীয়রা জানায়, লক্ষ্মীপুর জেলার কমলগঞ্জের বাসিন্দা রাজু ফেনীতে রিকশা চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করতো। বাবা-মার সঙ্গে সে শহরের বনানী পাড়ায় একটি বাসায় ভাড়া থাকতো। সোমবার রাতে ফেনী সদর হাসপাতাল এলাকা থেকে নিখোঁজ হয় রাজু। বুধবার দুপুরে শহরের সুলতানপুর এলাকায় একটি মরদেহ দেখতে পেয়ে স্থানীয়রা পুলিশে খবর দেয়। পরিবারের সদস্যরা মরদেহটি রাজুর বলে শনাক্ত করে। পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ফেনী সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়ে দেয়। ফেনী সদর হাসপাতালের অবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) অসীম কুমার  বলেন, মরদেহটি পচে পোকা ধরা শরু হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে দু'দিন আগে হত্যাকা- ঘটানো হয়েছে। ফেনী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রাশেদ খান চৌধুরী  বলেন, এটি হত্যা নাকি স্বাভাবিক মৃত্যু তা এখন বলা যাচ্ছে না। ময়নাতদন্তের পর বিষয়টি জানা যাবে।
নিহতের মা জানান, তার ছেলে ব্যাটারি চালিত অটোরিকশা চালিয়ে সংসার চালাতো। নিখোঁজ হওয়ার দিনও রিকশা নিয়ে বের হয়। দিনশেষ রিকশাটি সদর হাসপাতাল মোড়ে পাওয়া যায়। তবে রিকশার ব্যাটারিটি পাওয়া যায়নি। রিকশার ব্যাটারি চুরি করার জন্যই তাকে হত্যা করা হয়েছে বলেও ধারণা করেছেন নিহত রাজুর মা।