ধুনটে বাড়ির বৈঠকখানায় ৫৪ গোখরা সাপ নিধন

 ধুনটে বাড়ির বৈঠকখানায় ৫৪ গোখরা সাপ নিধন

ধুনট (বগুড়া) প্রতিনিধি : বগুড়ার ধুনট উপজেলার নিমগাছি ইউনিয়নের শিয়ালি গ্রামে এক কৃষকের বাড়ির বৈঠকখানা থেকে ৫৪টি বিষধর গোখরা সাপ নিধন করা হয়েছে। গতকাল শুক্রবার সকাল ৯টার দিকে গ্রামবাসীর সহযোগিতায় গৃহকর্তা সাপগুলো নিধন করেছে। উপজেলার শিয়ালি গ্রামের আদর্শ কৃষক হাবিবুর রহমানের বাহির বাড়িতে একটি বৈঠকখানা রয়েছে। বড় আকারের বৈঠকখানার এক পাশে জ্বালানি খড়ি মাচাং করে রাখা হয়েছে। ঘরটি পরিষ্কার পরিছন্ন ছিল না। এ সুযোগে সেখানে বিষধর গোখরা সাপ বাসা বেধেছে। গৃহকর্তার ছোট ভাই ফরমান আলী বলেন, গতকাল  শুক্রবার সকালের দিকে আমার বোন ফেন্সি খাতুন রান্নার কাজে ব্যবহারের জন্য ওই বৈঠকখানায় খড়ি আনতে যায়। এ সময় খড়ির মাচাং এর নিচে গোখরা সাপ ফোঁস ফোঁস করে বিকট শব্দ করতে থাকে।

 এ সময় সাপ! সাপ! বলে ফেন্সির চিৎকার শুনতে পেয়ে বাড়ির লোকজন দৌড়ে বৈঠকখানায় যায়। এরপর গ্রামবাসীর সহযোগিতায় বাড়ির লোকজন প্রায় এক ঘন্টা সময় ধরে চেষ্টার পর ঘরের কোনায় থাকা ইঁদুরের গর্ত থেকে বেরিয়ে আসা ২টি বড় আকারের সাপ নিধন করে। সাপ ২টি প্রায় ৬ ফুট লম্বা। সাপগুলো মারার পর গর্ত খুঁড়ে পাওয়া যায় ৫২টি সাপের ডিম। এ সময় ডিমগুলোও ভেঙে ফেলা হয়। কতগুলো সাপ খুবই ছোট। মনে হচ্ছে কেবলই ডিম থেকে বেরিয়েছে। বৈঠকখানায় ইঁদুরের গর্তে ঢুকে ডিম পেড়ে বাচ্চাগুলে ফুটিয়েছে মা গোখরা। ধুনট উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. নুরে আলম সিদ্দিকী জানান, গাছপালা-জঙ্গল কমে যাওয়ায় এবং বর্ষা মৌসুমে সাপ উঁচু স্থানে আশ্রয় খোঁজে। বাড়ি-ঘর কিংবা উঁচু স্থানে তারা মাটির গর্তে আশ্রয় নিয়ে ডিম দিচ্ছে।