জাতীয় পার্টি নির্বাচনের জন্য প্রস্তুত : এরশাদ

 জাতীয় পার্টি নির্বাচনের জন্য প্রস্তুত : এরশাদ

সুষ্ঠ, অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচনেই গণতন্ত্রের মুলতন্ত্র। আর নির্বাচন ছাড়া সরকার পরিবর্তন সম্ভব নয়। জাতীয় পার্টি নির্বাচনের জন্য প্রস্তুত বলে উল্লেখ করে দলটির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ বলেছেন, গণতন্ত্রের স্বার্থে আমরা নির্বাচন থেকে কখনই সড়ে দাঁড়াতে চাই না।

শনিবার জাপার বনানী কার্যালয়ে জাতীয় পার্টি রাজবাড়ী জেলা সভাপতি এবং রাজবাড়ী জেলা আইনজীবী সমিতির নব-নির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট হাবিবুর রহমান বাচ্চুর নেতৃত্বে আইনজীবি ফেডারেশনের নেতৃবৃন্দ এরশাদকে ফুলের শুভেচ্ছা জানাতে এলে তিনি এসব কথা বলেন। আগামী নির্বাচনে জাপার প্রস্তুতি প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ দূত এরশাদ বলেন, ইতিমধ্যে আমরা নির্বাচনী প্রচারে মাঠে নেমেছি। মানুষ ব্যাপক সাড়া দিচ্ছেন। সবাই চান আগামীতে জাতীয় পার্টি ক্ষমতায় আসুক। কারণ জাতীয পার্টি ক্ষমতায় আসলে মানুষের আর দুঃখ কষ্ট থাকবে না। সবাই শান্তিতে বসবাস করতে পারবেন। তাই আমার শেষ ইচ্ছে ক্ষমতায় আসা।

এরশাদ বলেন, নেতারা দল পরিচালনা করলেও জনগণই নির্ধারণ করেন কারা ক্ষমতায় আসবে। তাই আমাদের জনগণের দ্বারে দ্বারে যেতে হবে। জাতীয় পার্টির শাসনামলে যে উন্নয়ন হয়েছে তা বিএনপি-আওয়ামী লীগ মিলেও করতে পারেনি। আমাদেরকে শুধু ভোটারদেরকে তা স্মরণ করিয়ে দিতে হবে। বুঝাতে হবে দেশে শান্তি ও নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠিত করতে হলে জাতীয় পার্টিকেই পুনরায় ক্ষমতায় বসাতে হবে। তিনি বলেন, আমরা নির্বাচন পর্যন্ত মাঠে থাকব। নির্বাচন থেকে পিছ পা হব না। কোন দল নির্বাচনে না আসলেও আমরা মাঠে আছি, থাকব। কারণ জাতীয় পার্টি নির্বাচন ও গণতন্ত্রে বিশ্বাস করে। কোন পরিস্থিতিতে গণতন্ত্র হুমকির মুখে পড়–ক আমরা তা চাই না। এসময় জাতীয় পার্টির মহাসচিব এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য অ্যাডভোকেট শেখ মোহাম্মদ সিরাজুল ইসলাম, মীর আবদুস সবুর আসুদ, মেজর অব. খালেদ আখতার, উপদেষ্টা মন্ডলীর সদস্য সৈয়দ দিদার বখত, অ্যাডভোকেট রেজাউল ইসলাম ভুঁইয়া প্রমুখ