পরকীয়া জের

সাঘাটায় গৃহবধূকে গাছের সাথে বেঁধে নির্যাতন

  সাঘাটায় গৃহবধূকে গাছের সাথে বেঁধে নির্যাতন

সাঘাটা (গাইবান্ধা) প্রতিনিধি : স্বামীর পরকিয়ায় বাধা দেয়ায় গাইবান্ধার সাঘাটা উপজেলায় সিমা আক্তার (২৮) নামের এক গৃহবধূকে গাছের সাথে বেঁধে নির্মম নির্যাতন করেছে পাষন্ড স্বামী। পরে স্থানীয় ইউপি সদস্য ও চৌকিদারসহ স্থানীয়রা ঘটনাস্থলে এসে গৃহবধূর বাঁধন খুলে দিয়ে তাকে উদ্ধার করে। শুক্রবার সাঘাটার মথরপাড়া গ্রামে এ  ঘটনা ঘটে।স্থানীয়রা জানায়, উপজেলার হলদিয়া ইউনিয়নের গোবিন্দপুর গ্রামের মোসলেম উদ্দিনের মেয়ে সিমা অক্তারের সাথে ঘুড়িদহ ইউনিয়নের মথরপাড়া গ্রামের জহুরুল ইসলামের ছেলে তাজিরুল ইসলমের বিয়ে হয় প্রায় ১০ বছর আগে । তাদের সংসারে দুটি সন্তান রয়েছে।

 কিন্তু পাশের বাড়ির এক মেয়ের সাথে স্বামীর পরকীয়া সম্পর্ক গড়ে ওঠে। এই ঘটনাটি স্ত্রীর কাছে ফাঁস হওয়ায় তাজিরুল ইসলাম তার স্ত্রী সিমাকে একতরফা তালাক দিয়ে বাবার বাড়ি পাঠিয়ে দেয়। পরে স্থানীয়ভাবে মিমাংসা করে সিমাকে আবার বাড়িতে আনেন। কিন্তু এরপরেও স্বামী পরকীয়া চালাতে থাকে। বিষয়টি স্ত্রী কোনোভাবেই মেনে নিতে না পারায় স্ত্রীর ওপর শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন চালায়। একপর্যায়ে তাজিরুল তার স্ত্রীকে মুখ চেপে ধরে গাছের সাথে বেঁধে রাখে। পরে বিষয়টি চারদিকে ছড়িয়ে পরলে স্থানীয় ইউপি সদস্য চৌকিদারসহ ঘটনাস্থলে এসে গৃহবধূর বাঁধন খুলে দিয়ে তাকে উদ্ধার করে। ঘটনার পর থেকে স্বামী  পলাতক রয়েছে।এ বিষয়ে ঘুড়িদহ ইউপি সদস্য নুরুন্নবী জানান, ঘটনাটি শোনার পর পুলিশ গিয়ে গৃহবধূ সিমাকে উদ্ধার করেছে। তাকে সাঘাটা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ব্যাপারে সাঘাটা থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।