ভোর ৫:২৬, শনিবার, ১৫ই ডিসেম্বর, ২০১৭ ইং
/ খেলাধুলা / ২-০ করে ফেলল অস্ট্রেলিয়া
২-০ করে ফেলল অস্ট্রেলিয়া
ডিসেম্বর ৬, ২০১৭

চলতি অ্যাশেজের প্রথম টেস্টে হারের পর অ্যাডিলেইডে ঘুরে দাঁড়ানোর সম্ভাবনা তৈরি হয়েছিল ইংল্যান্ডের।

অ্যাশেজ ইতিহাসে দিবা-রাত্রির প্রথম টেস্টের দ্বিতীয় ইনিংসে স্বাগতিক অস্ট্রেলিয়াকে কম রানে বেঁধে সেই সম্ভাবনার ভিত্তি স্থাপন করেছিল ইংলিশরা। কিন্তু দ্বিতীয় ইনিংসে স্টার্ক-হ্যাজেলউডদের বোলিং তোপে অ্যাডিলেইডেও হারল সফরকারী ইংল্যান্ড।

ব্রিসবেন টেস্টে ইনিংস ব্যবধানে হেরেছিল ইংল্যান্ড। তবে অ্যাডিলেডে সেই লজ্জা থেকে বাঁচলেও ১২০ রানের হারে পিছিয়ে পড়েছে জো রুটের দল। আর ঘরের মাঠে টানা দুই জয়ে পাঁচ ম্যাচ অ্যাশেজে ২-০ ব্যবধানে এগিয়ে গেল স্টিভেন স্মিথের অস্ট্রেলিয়া।

অ্যাডিলেড ওভালে পঞ্চম দিনে ৫৭ রানে শেষ ছয় উইকেটের পতন ঘটে ইংল্যান্ডের। প্রথম ইনিংসে বড় পুঁজির কল্যাণে ইংল্যান্ডকে ৩৫৪ রানের টার্গেটে বেঁধে দিতে সক্ষম ইংল্যান্ডে। আর ৩৫৪ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে ইংলিশদের দ্বিতীয় ইনিংস থামে ২৩৩-এ। স্বাগতিক বোলার স্টার্ক-হ্যাজলউডদের বোলিং তোপে ১২০ রানে হারের স্বাদ পেতে হয়েছে সফরকারীদের। 

গতকাল চতুর্থ দিনের করা চার উইকেটে ১৭৬ রান নিয়ে আজ ব্যাটিং শুরু করে ইংল্যান্ডে। আজ পরপর দুই ওভারে জোড়া আঘাত করে ইংলিশ শিবির লন্ডভন্ড করে দেন জস হ্যাজলউড। ইনিংসের ৬৩তম ওভারের দ্বিতীয় বলে ক্রিস উকসের (৫) বিদায়ে বিপদে পড়ে ইংলিশরা। ১ রান যোগ হতেই ৬৪.৫ ওভারের সময় ভরসার প্রতীক অধিনায়ক রুটকেও (৬৭) সাজঘরে পাঠান হ্যাজলউড। এরপর মঈন আলীকে (২) এলবিডব্লিউর ফাঁদে ফেলেন অফস্পিনার নাথান লায়ন।এরপর ক্রেইগ ওভারটন (৭), স্টুয়ার্ট ব্রড (৮) ও জনি বেয়ারস্টো (৩৬) বিদায় হন।

বল হাতে ইংল্যান্ডের হয়ে মিচেল স্টার্ক সর্বোচ্চ ৫টি উইকেট নেন। এছাড়া ২টি করে উইকেট নেন জস হ্যাজেলউড ও নাথান লায়ন।

এর আগে অ্যান্ডারসন-ওকসের বোলিং নৈপুণ্যে মাত্র ১৩৮ রানে অলআউট হয়েছিল অস্ট্রেলিয়া। একাই পাঁচ উইকেট নেন জেমস অ্যান্ডারসন। চারটি উইকেট নেন ক্রিস ওকস। দ্বিতীয় ইনিংসে ব্যাটিং বিপর্যয় হলেও প্রথম ইনিংসে ২১৫ রানের লিডের সুবাদে বড় লক্ষ্য ছুঁড়ে দিতে সক্ষম হয়েছিল স্মিথ-ওয়ার্নাররা। শন মার্শের অপরাজিত সেঞ্চুরিতে (১২৬ নকআউট) অসিদের ৪৪২ রানের জবাবে ২২৭ রানে অলআউট হয় সফরকারী ইংল্যান্ড।

 



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :




Go Back Go Top