রাত ৪:৩৬, শুক্রবার, ২৩শে নভেম্বর, ২০১৭ ইং
/ খেলাধুলা / হাসান-ইমামের নৈপুণ্যে সিরিজ পাকিস্তানের
হাসান-ইমামের নৈপুণ্যে সিরিজ পাকিস্তানের
অক্টোবর ১৯, ২০১৭

ওয়ানডে দলে তার অন্তর্ভূক্তি নিয়ে ছিল প্রশ্ন। প্রধান নির্বাচক পদে থাকা চাচা ইনজামাম-উল-হকের দাপটে জাতীয় দলে সুযোগ পেয়েছেন- এমন সমালোচনা করেছেন অনেকে। কিন্তু ইনজামাম ঠিকই তার ভাতিজা ইমাম-উল-হকের ওপর আস্থা রেখেছিলেন। তার প্রতিভায় মুগ্ধ হয়ে দিয়েছিলেন জাতীয় দলের টিকিট। চাচার মান ভাতিজা ঠিকই রাখলেন, অভিষেকেই করলেন দুর্দান্ত সেঞ্চুরি।

বুধবার আবুধাবিতে তৃতীয় ওয়ানডেতে শ্রীলঙ্কাকে ৭ উইকেটে হারিয়েছে পাকিস্তান। দলের জয়ের বড় অবদান ইমামের। ব্যাট হাতে ১০০ রানের ইনিংস খেলে দুই ম্যাচ হাতে রেখে পাকিস্তানকে সিরিজ জয়ের স্বাদও দিয়েছেন বাঁহাতি এই ওপেনার। ম্যাচসেরার পুরস্কারও পেয়েছেন তিনিই। দ্বিতীয় পাকিস্তানি এবং ১৩তম ক্রিকেটার হিসেবে ওয়ানডে অভিষেকে সেঞ্চুরি হাঁকানোর অনন্য কীর্তিও গড়েছেন। সব মিলিয়ে পাকিস্তানের জার্সিতে ইমামের শুরুটা হলো অসাধারণ।

তবে পাকিস্তানকে জয়ের ভিত গড়ে দিয়েছিলেন বোলাররা। বিশেষ করে পেসার হাসান আলী। টস জিতে ব্যাট করতে নেমে শ্রীলঙ্কা গুটিয়ে যায় মাত্র ২০৮ রানে। বল হাতে ক্যারিয়ার সেরা ৩৪ রানে ৫ উইকেট নেন হাসান। এ ছাড়া লেগ স্পিনার শাদাব খান ২টি এবং জুনায়েদ খান ও মোহাম্মদ হাফিজ ১টি করে উইকেট নেন।

দ্বিতীয় ওয়ানডের মতো এ ম্যাচেও ব্যাট হাতে একাই লড়ে যান লঙ্কান অধিনায়ক উপুল থারাঙ্গা। ৮০ বলে ৫ বাউন্ডারিতে ৬১ রান করেন বাঁহাতি এই ওপেনার। এ ছাড়া থিসারা পেরেরা ৩৯, লাহিরু থিরিমান্নে ২৮ রান করেন।

মাঝারি লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে ৭৮ রানের উদ্বোধনী জুটি গড়েন ইমাম ও ফখর জামান। ২৯ রানে ফখর ফিরে গেলেও ইমাম ২২ গজের ক্রিজে নিজের ব্যাটিং দ্যুতি ছড়িয়ে যান। ৬৭ বলে তুলে নেন হাফ সেঞ্চুরি। এরপর দ্রুতই এগিয়ে যান সেঞ্চুরির পথে।

দলীয় ১৪৪ রানে আগের ম্যাচের সেঞ্চুরিয়ান বাবর আজম ৩০ রানে আউট হন। পেছনে ফিরে তাকাননি ইমাম। মোহাম্মদ হাফিজকে সঙ্গে নিয়ে পাকিস্তানকে নিয়ে যান জয়ের কাছাকাছি। ১২৪ বলে ইমাম তুলে নেন সেঞ্চুরি। পরের বলেই পুল করতে গিয়ে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দেন। ১২৫ বলে ৫ চার ও ২ ছক্কায় ইনিংসটি সাজান তিনি।

জয়ের বাকি কাজটুকু সারেন হাফিজ। ৫১ বলে ৪ বাউন্ডারিতে ৩৪ রানে অপরাজিত থাকেন ‘মিস্টার প্রফেসর’। টেস্ট সিরিজ হারের পর ওয়ানডে সিরিজ জিতে নিয়েছে পাকিস্তান। সরফরাজ আহমেদের দল লঙ্কানদের হোয়াইটওয়াশ করতে পারে কি না, সেটাই এখন দেখার পালা।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :




Go Back Go Top