সকাল ৯:১৭, শনিবার, ১৬ই ডিসেম্বর, ২০১৭ ইং
/ রাজনীতি / রায়ের পক্ষের লোকজনকে থ্রেট দেয়া হচ্ছে : রিজভী
রায়ের পক্ষের লোকজনকে থ্রেট দেয়া হচ্ছে : রিজভী
আগস্ট ২৪, ২০১৭

সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনী বাতিলের রায়ের পক্ষে যারা কথা বলছেন আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী দিয়ে সরকার তাদেরকে ‘থ্রেট’ দিচ্ছে বলে অভিযোগ করেছে বিএনপি। অন্যদিকে, বেগম খালেদা জিয়ার নেতৃত্বাধীন তৎকালীন চারদলীয় জোট সরকারকে বিব্রত করতে আওয়ামী লীগ পরিকল্পিতভাবে ২১ আগস্টের ঘটনা ঘটিয়েছে বলেও অভিযোগ করেছে দলটি।

বৃহস্পতিবার সকালে রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের নিচতলায় এক দোয়া মাহফিলে দলটির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী এই অভিযোগ করেন। গত ৮ আগস্ট লন্ডনের মুরফিল্ড আই হাসপাতালে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার ডান চোখে অস্ত্রোপচারের পর তার আরোগ্য কামনায় এ দোয়া মাহফিলের আয়োজন করে জাতীয়তাবাদী ওলামা দল। ২১ আগস্টের গ্রেনেড হামলার ঘটনা প্রসঙ্গে রিজভী বলেন, ২১ আগস্ট আওয়ামী লীগকে বলা হয়েছিলো মুক্তাঙ্গণে সভা করার জন্য। করেননি কেন? আপনারা আওয়ামী লীগের অফিসের কাছে সভা করলেন। এর মধ্যে তো কোনোকিছু লুকিয়ে আছে, কোনো ঘটনা লুকিয়ে আছে। ঘটনা কী? ওখানে বোমা ফুটলো কিন্তু তিনি (শেখ হাসিনা) সিকিউরর্ড হলেন। আমরা যদি বলি, তৎকালীন বিএনপি সরকারকে বিব্রত করার জন্য আপনার লোকরাই এই কাজ করেছেন।

আপনার প্রতি সহানুভূতি আসবে, আপনি বেঁচে থাকবেন। আপনার কিছু লোক মরে গেলে তো কী আসে, যায় আসে না- এ রকম একটা মনোভাব আপনাদের রয়েছে। বিএনপির এই নেতা বলেন, আমরা বলতে চাই- ২১ আগস্টের ঘটনা পরিকল্পিত একটি ঘটনা ছিলো আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে। আওয়ামী লীগের শুভাকাক্সক্ষীরা এই ঘটনা ঘটিয়েছেন। তার আরেকটি প্রমাণ কী জানেন? তাদের আন্দোলনের ফসল মঈন-ফখরুদ্দিনও কোনোভাবেই তারেক রহমানকে ২১ আগস্টের ঘটনায় জড়াতে পারেনি। কিন্তু আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এসে তাদের মনোনীত কাহার আখন্দ (তদন্ত কর্মকর্তা)কে নিয়োগ দিয়ে তারেক রহমানকে সাপ্লিমেন্টারি চার্জশিট দিয়ে ঢুকানো হয়েছে। টার্গেট হচ্ছে বেগম খালেদা জিয়া, তারেক রহমান অর্থাৎ বিএনপির ভাবমূর্তিকে খাটো করা এবং তার (শেখ হাসিনা) প্রতি সহানুভূতি বাড়ানো। এটা প্রমাণিত হয়েছে যে- আওয়ামী লীগ, বর্তমান প্রধানমন্ত্রীর শুভাকাক্সক্ষীরা বা তাদের লোকজনরাই এই কাজ করেছে। এক এক করে ঘটনাগুলো যদি বিশ্লেষণ করেন, তাহলে দেখবেন অত্যন্ত পরিকল্পিত এই ঘটনা। অত্যন্ত পরিকল্পিতভাবে এই ঘটনা ঘটিয়েছেন- তারেক রহমানকে ধরতে হবে, বেগম খালেদা জিয়াকে ধরতে হবে, তার সরকারকে ইয়ে করতে হবে। ওলামা দলের সভাপতি হাফেজ আবদুল মালেকের সভাপতিত্বে দোয়া মাহফিলে বিএনপির হাবিব-উন-নবী খান সোহেল ও শহীদউদ্দিন চৌধুরী এ্যানীসহ অন্যরা বক্তব্য রাখেন।

এই বিভাগের আরো খবর



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :




Go Back Go Top