ভোর ৫:২৭, শনিবার, ১৫ই ডিসেম্বর, ২০১৭ ইং
/ জাতীয় / রংপুরের ঘটনায় গভীর ষড়যন্ত্র: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
রংপুরের ঘটনায় গভীর ষড়যন্ত্র: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
নভেম্বর ১৬, ২০১৭

ফেইসবুকে উসকানিমূলক ছবি দিয়ে পরিকল্পিতভাবে রংপুরে হিন্দু সম্প্রদায়ের উপর হামলা হয়েছে বলে দাবি করছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল। পুরো ঘটনার তদন্ত চলছে জানিয়ে তিনি বলেছেন, এই ঘটনাগুলো আমাদের কাছে প্রাথমিকভাবে মনে হচ্ছে গভীর ষড়যন্ত্র। তদন্তের আগে আমরা এখনও অফিসিয়ালি কিছু বলছি না। আমরা মনে করছি এটা একটি ষড়যন্ত্রের সবকিছু আমরা টের পাচ্ছি। বৃহস্পতিবার দুপুরে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে বিজয় দিবস উদযাপন উপলক্ষে সার্বিক নিরাপত্তা নিয়ে আন্তঃমন্ত্রণালয়ের এক সভা শেষে সাংবাদিকের প্রশ্নে একথা বলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

ফেইসবুকে মহানবীকে অবমাননার অভিযোগ তুলে রংপুরের খলেয়া ইউনিয়নের ঠাকুরপাড়া গ্রামে গত ১০ নভেম্বর হিন্দু সম্প্রদায়ের ঘরে হামলা চালিয়ে অগ্নিসংযোগ করা হয়। কক্সবাজারের রামু, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরসহ বিভিন্ন স্থানে একইভাবে ধর্মীয় উসকানি দিয়ে হামলা হয়েছিল; তার মতো রংপুরের ঘটনায়ও ষড়যন্ত্র থাকতে পারে বলে ওই এলাকা ঘুরে এসে ইঙ্গিত দিয়েছিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। বৃহস্পতিবার আরও স্পষ্ট করে তিনি বলেন, আমাদের কাছে খবর রয়েছে ওই ঘটনার সঙ্গে জামায়াত, বিএনপি ও জাতীয় পার্টি রয়েছে। এর আগে রংপুরের এসপি মিজানুর রহমান সাংবাদিকদের বলেছিলেন, নির্বাচনের আগে দেশে অস্থিতিশীল পরিস্থিতি তৈরির জন্য জামায়াত-শিবির এ ঘটনা ঘটিয়েছে। বিএনপি-জামায়াত সরকারের বিরোধিতায় সক্রিয় থাকলেও এইচ এম এরশাদের নেতৃত্বাধীন জাতীয় পার্টি রয়েছে আওয়ামী লীগ নেতৃত্বাধীন সরকারে। রংপুরের এমপি এরশাদ এই ঘটনার বিচার বিভাগীয় তদন্তও দাবি করেছেন। হামলায় জড়িত অনেককে চিহ্নিত করে গ্রেপ্তারের প্রক্রিয়া চলছে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। সেদিন ধর্মীয় উসকানি দেওয়ায় অনেকেই এই ঘটনায় জড়িয়ে পড়েছিলেন জানিয়ে গ্রেপ্তারের ক্ষেত্রে সাবধানতা অবলম্বনের কথা বলেন তিনি। আমরা ভিডিও ফুটেজ দেখে কিন্তু গণগ্রেপ্তার করছি না। অনেক লোক সেখানে গিয়েছিল। শত শত মানুষ ওই জায়গায় আক্রমণ করেছিল। সব মানুষের ভিডিও ফুটেজ না থাকলেও তাদের কিছু ফটো রয়েছে এবং যাদের আমরা শনাক্ত করতে পারছি, তাদের গ্রেপ্তার করা হচ্ছে। টিটু রায় নামে এক জনের ফেইসবুক একাউন্টে মহানবীকে অবমাননাকর পোস্ট দেখিয়ে উসকানি দেওয়া হয়েছিল বলে অভিযোগ উঠেছে।

টিটুকে গ্রেপ্তারও করা হয়েছে। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, টিটু রায় যে টেলিফোন ব্যবহার করতেন, সেখান থেকে আপত্তিকর ছবি প্রকাশিত হয়েছিল। সেটাকে সূত্র ধরে এই ঘটনাটি ঘটেছে। তার ফোনটি সিআইডিতে পরীক্ষা করছি। টিটু আগে সেখানে বসবাস করতেন, চার বছর ধরে সেখানে থাকেন না। সেটা আমরা পরে জানতে পেরেছি। টিটু রায়ের সম্পৃক্ততা পাওয়া গেলে তারও বিচারের কথাও বলেন আসাদুজ্জামান কামাল।

বিজয় দিবসে সড়কে তোরণ নিষিদ্ধ
বিজয় দিবস উপলক্ষে সড়কের উপর তোরণ নির্মাণ নিষিদ্ধ থাকবে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। তিনি সাংবাদিকদের বলেন, শুধু ঢাকা থেকে সাভার পর্যন্ত নয়। সারা দেখে ওভারহেড তোরণ তৈরি করা যাবে না। সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান করতে হলে সাত দিন আগে নিরাপত্তা বাহিনীকে জানাতে হবে বলে তিনি জানান। সন্ধ্যার পর কর্তৃপক্ষের অনুমতি সাপেক্ষে কোনো হলে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান করা যাবে। মন্ত্রী বলেন, বিজয় দিবসের অনুষ্ঠানে চিহ্নিত স্বাধীনতাবিরোধী কেউ নেতৃত্ব দিতে পারবেন না কিংবা অতিথি বা বিশেষ অতিথি হিসেবে থাকতে পারবেন না। কারা স্বাধীনতাবিরোধী বলে বিবেচিত হবে- জানতে চাইলে তিনি বলেন, স্বাধীনতা সংগ্রামের সময় যারা স্বাধীনতার বিরোধিতা করেছে, তাদেরকে বোঝানো হয়েছে। এলাকার লোক জানে, কারা স্বাধীনতার সময় বিরোধিতা করেছে। রোহিঙ্গাদের ফেরতে মিয়ানমার ও বাংলাদেশের জয়েন্ট ওয়ার্কিং গ্রুপ গঠনের অগ্রগতির বিষয়ে জানতে চাইলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, পররাষ্ট্রমন্ত্রী সে বিষয়ে কাজ করছেন। আমাদের কাজ চলছে।

 



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :




Go Back Go Top