সকাল ৮:১০, বুধবার, ১৮ই অক্টোবর, ২০১৭ ইং
/ রাজনীতি / বিভিন্ন স্থানে বিএনপির কর্মসূচিতে পুলিশি বাধা ও গ্রেফতার
খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানার প্রতিবাদ
বিভিন্ন স্থানে বিএনপির কর্মসূচিতে পুলিশি বাধা ও গ্রেফতার
অক্টোবর ১১, ২০১৭

করতোয়া ডেস্ক : বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে হয়রানিমূলক মামলা ও গ্রেফতারি পরোয়ানা জারির প্রতিবাদে কেন্দ্র ঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে  বুধবার দেশের বিভিন্ন স্থানে বিএনপি, ছাত্রদল, যুবদল বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে। তবে নওগাঁ, রংপুর ও পাবনার সুজানগরে পুলিশ বাধা দেয়ায় তাদের কর্মসূচি পন্ড হয়ে যায়।

প্রতিনিধিদের পাঠানো রিপোর্ট

নওগাঁ : নওগাঁ জেলা বিএনপির বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ  পুলিশের বাধায় পন্ড হয়ে গেছে। দুপুর ১২টার দিকে দলীয় কার্যালয় থেকে জেলা বিএনপি সভাপতি নজমুল হক সনি ও সাধারণ সম্পাদক জাহিদুল ইসলাম ধলুর নেতৃত্বে মিছিল বের হওয়ার সময় দলীয় কার্যালয়ের সামনেই পুলিশ মিছিলে বাঁধা দেয় এবং মিছিলটি ছত্রভঙ্গ করে দেয়। পরে পুলিশের বেষ্টনির মধ্যে দলীয় কার্যালয়ের সামনেই সমাবেশ করে জেলা বিএনপির নেতৃবৃন্দ। জেলা
(শেষ পাতার পর)

বিএনপির সভাপতি নজমুল হক সনির সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক জাহিদুল ইসলাম ধলু, যুগ্ম সম্পাদক সহিদুল ইসলাম টুকু প্রমুখ।  

রাজশাহী : রাজশাহীতে দুপুরে নগরীর মালোপাড়াস্থ দলীয় কার্যালয়ের সামনে থেকে বিক্ষোভ মিছিল বের করে বিএনপি নেতাকর্মীরা। এসময় পুলিশ তাদের বাধা দেয়। পরে পুলিশ বাধায় দলীয় কার্যালয়ের সামনে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। রাজশাহী মহানগর বিএনপির সভাপতি ও সিটি মেয়র মোহাম্মদ মোসাদ্দেক হোসেন বুলবুলের সভাপতিত্বে সমাবেশে দলীয় চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা মিজানুর রহমান মিনু ও মহানগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এড. শফিকুল হক মিলন বক্তব্য রাখেন।

নীলফামারী : নীলফামারীতে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে জেলা ছাত্রদল।  শহরের পৌরসভা মার্কেটস্থ জেলা বিএনপির দলীয় কার্যালয়ের সামনে থেকে বিক্ষোভ মিছিল বের করে বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে বড়বাজারের দিকে যাওয়ার পথে শহরের কালিবাড়ি মোড়ে পুলিশ বাধা দেয়। পুলিশের বাধায় সেখান থেকে ফিরে দলীয় কার্যালয়ের সামনে প্রতিবাদ সমাবেশ করে নেতা কর্মীরা।

জেলা ছাত্রদলের সভাপতি সালেকীন আহমেদ সজিবের সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মীর সেলিম ফারুক,  ছাত্রদল কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য আব্দুস সালাম বাবল, জেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক মো. মারুফ পারভেজ প্রিন্স প্রমুখ।

রংপুর : রংপুরে দুপুরে নগরীর গ্রান্ড হোটেল মোড়ের কার্যালয় থেকে মহানগর বিএনপির নেতাকর্মীরা একটি বিক্ষোভ মিছিল নিয়ে প্রধান সড়কে উঠতে চাইলে তাতে বাঁধা দিয়ে আটকিয়ে দেয় পুলিশ। এসময় সেখানে পুলিশের সাথে নেতাকর্মীদের বাকবিতন্ডা হয়। পরে সেখানেই সমাবেশে বক্তব্য রাখেন মহানগর সভাপতি মোজাফ্ফর হোসেন, সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম মিজু।

সুজানগর (পাবনা): পাবনার সুজানগর উপজেলা ও পৌর বিএনপির উদ্যোগে আয়োজিত বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সভা পুলিশি বাধায় প  হয়ে যায়। দুপুর ১২টায় পাবনা-২ আসনের সাবেক এমপি ও বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য একেএম সেলিম রেজা হাবিবের নেতৃত্বে এক বিক্ষোভ মিছিল স্থানীয় সেলিম রেজা হাবিব ডিগ্রি কলেজ চত্বর থেকে বের হয়ে পাবনা-সুজানগর প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণকালে সুজানগর থানা পুলিশ বাধা দেয়। এতে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সভা প  হয়ে যায়।

নেত্রকোনা : নেত্রকোনা শহরের ছোটবাজারস্থ দলীয় কার্যালয়ে বিএনপি প্রতিবাদে বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে। জেলা বিএনপির সভাপতি সাবেক এমপি বীরমুক্তিযোদ্ধা আশরাফ উদ্দিন খানের সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তৃতা করেন কেন্দ্রীয় বিএনপির সদস্য ড. আরিফা জেসমিন নাহীন, জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক এস.এম মনিরুজ্জামান দুদু, যুগ্ম সম্পাদক সালাউদ্দিন খান মিলকী, মশিউর রহমান মশু, জেলা ছাত্রদলের সভাপতি ফরিদ হোসেন বাবু, সাধারন সম্পাদক অনিক মাহাবুব চৌধুরী প্রমুখ।

আত্রাই (নওগাঁ) : নওগাঁর আত্রাই থানা বিএনপির উদ্যোগে বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। থানা বিএনপির আহবায়ক এসএম রেজাউল ইসলাম রেজুর নেতৃত্বে আত্রাই রেলওয়ে স্টেশন চত্বর থেকে বিক্ষোভ মিছিল বের হয়ে আত্রাই-ভবানীগঞ্জ সড়কের তিন মাথা মোড়ে সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। এসএম রেজাউল ইসলাম রেজুর সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন থানা বিএনপি’র আহবায়ক কমিটির সদস্য তছলিম উদ্দিন, বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মান্নান প্রমুখ।
দিনাজপুর : দিনাজপুর শহরের কয়েকটি স্থানে ঝটিকা বিক্ষোভ মিছিল করেছে বিএনপির নেতাকর্মীরা। তবে পুলিশ আসার আগেই নেতাকর্মীরা ঘটনাস্থল ত্যাগ করে চলে যায়।

জেলা বিএনপির ব্যানারে শহরের নিমতলা এলাকা হতে বিক্ষোভ মিছিল বের করে মুন্সিপাড়া গিয়ে শেষ হয়। এই মিছিলে জেলা বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক মো: খালেকুজ্জামান বাবু, মো: মোকাররম হোসেন, হাসানুজ্জামান উজ্জল, আকতারুজ্জামান জুয়েল, মোস্তফা কামাল মিলনসহ অন্যান্য নেতাকর্মীরা অংশগ্রহণ করেন। এর আগে সকাল সাড়ে ১০টায় শহরের চৌরঙ্গী সিনেমা হল এলাকা থেকে পৌর বিএনপির সভাপতি আলহাজ্ব মো. সোলায়মান মোল্লার নেতৃত্বে এক ঝটিকা মিছিল বের করে চেহেলগাজী স্কুল মোড় এলাকায় হিয়ে শেষ হয়।

এদিকে  বুধবার সকালে বিরল পৌর বিএনপির আহ্বায়ক লিয়াকত আলীর নেতৃত্বে নেতাকর্মীরা হাসপাতাল রোড থেকে মিছিল বের করে পৌর শহর প্রদক্ষিণ করে বকুলতলা মোড়ে পৌছলে পুলিশি বাধার মুখে পড়ে। এ সময় পুলিশ লাঠিচার্জ করে মিছিলটি ছত্রভঙ্গ করে দেয়।
নোয়াখালী : নোয়াখালী জেলা শহর মাইজদীতে বিক্ষোভ মিছিল বের করে জেলা বিএনপি। এসময় পুলিশ তাতে বাধা দিলে উভয় পক্ষের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ কয়েক রাউন্ড শর্টগানের গুলি ছুঁড়ে। সংঘর্ষে ৩ পুলিশ সদস্যসহ অন্তত ২০ জন আহত হয়েছে। আটককৃতরা  হলেন- জেলা যুবদলের সভাপতি মাহবুল আলম আলো ও সদর থানা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ভিপি জসীম উদ্দিন’সহ ৩ জন।
ময়মনসিংহ : পুলিশি বাধায় বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে দক্ষিণ জেলা বিএনপি।  বুধবার দুপুরে নগরীর নতুন বাজারস্থ দলীয় কার্যালয় চত্বরে এ বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

এ সময় জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক জেলা ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি আবু ওয়াহাব আকন্দের সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সাংগঠনিক সম্পাদক আলমগীর মাহমুদ আলম, যুগ্ম সম্পাদক আলহাজ্ব কাজী রানা প্রমুখ। অপরদিকে একই ইস্যুতে আদালতপাড়ায় বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছেন সমন্বিত আইনজীবী ঐক্য ফোরাম।  দুপুরে জেলা আইনজীবী সমিতি এলাকায় এ বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

শাহজাদপুর (সিরাজগঞ্জ) : জেলার শাহজাদপুর উপজেলার পৌর সদরের মনিরামপুর বাজারস্থ বিএনপি কার্যালয় থেকে ১০ নেতা-কর্মীকে আটক করেছে পুলিশ।  বুধবার সকাল সাড়ে ১১টায় শাহজাদপুর থানার ইন্সপেক্টর ইনভেস্টিগেশন কে,এম রাকিবুল হুদার নেতৃত্বে পুলিশ এক অভিযান চালিয়ে পৌর যুব দলের সভাপতি আব্দুল্লাহ-আল মাহমুদ, সাধারণ সম্পাদক জাহিদুল ইসলামসহ সজিবুল ইসলাম সবুজ, জহুরুল ইসলাম, লবু শেখ, হাসান আলী, রুবেল, আমিনুল ইসলাম আমিন, নুরুল ইসলাম ও মনসুর আলী এই ১০ জনকে আটক করেছে।

লালমনিরহাট: লালমনিরহাটে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে জেলা বিএনপি, যুবদল, ছাত্রদল ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা।  বুধবার দুপুরে জেলা বিএনপি কার্যালয়ের সামনে থেকে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের হয়। মিছিলটি জেলা বিএনপি কার্যালয় হতে বের হয়ে শহরে প্রবেশ করতে চাইলে কার্যালয়ের সামনে পুলিশি বাধার সম্মুখীন হয়। পরে সেখানেই তারা প্রতিবাদ সমাবেশ করে।

লালমনিরহাট সদর উপজেলা বিএনপির সাধারন সম্পাদক ও উপজেলা চেয়ারম্যান একেএম মমিনুল হকের সভাপতিত্বে বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তব্য দেন জেলা বিএনপির সাধারন সম্পাদক হাফিজুর রহমান বাবলা, জেলা যুবদলের সভাপতি এম এ হালিম প্রমুখ।

 



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :




Go Back Go Top