ভোর ৫:৩৯, শনিবার, ১৫ই ডিসেম্বর, ২০১৭ ইং
/ খেলাধুলা / পাঁচ গোলের রোমাঞ্চকর লড়াইয়ে জিতল রিয়াল
পাঁচ গোলের রোমাঞ্চকর লড়াইয়ে জিতল রিয়াল
ডিসেম্বর ৭, ২০১৭

চ্যাম্পিয়নস লিগে বরুশিয়া ডর্টমুন্ডের বিপক্ষে হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ে জিতল রিয়াল মাদ্রিদ। সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে ডর্টমুন্ডের বিপক্ষে রোমাঞ্চকর লড়াইয়ে ৩-২ ব্যবধানে জয় পেয়েছে লস ব্লাঙ্কোসরা।

আর রিয়ালের বিপক্ষে হারে চ্যাম্পিয়নস লিগে গ্রুপ ‘এইচ’ এ তৃতীয় স্থানে থেকে শেষ করল ডর্টমুন্ড। ৬ ম্যাচে ১৬ পয়েন্ট নিয়ে তালিকার শীর্ষ থেকে নকআউট পর্ব নিশ্চিত করেছে টটেনহাম হটস্পার। সমান ম্যাচে ১৩ পয়েন্ট থেকে নকআউট পর্বে উঠল রিয়াল মাদ্রিদ।

ঘরের মাঠে রিয়ালের জয়ে গতকাল একটি করে গোল পেয়েছেন বোরহা মায়োরাল, ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো ও লুকাস ভাসকেস। অন্যদিকে রিয়ালের বিপক্ষে হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ে ডর্টমুন্ডের হয়ে একাই দুটি গোল করেছেন দলটির তারকা খেলোয়াড় পিয়েরে আবমেয়াং।

চ্যাম্পিয়নস লিগে গতকাল ঘরের মাঠে আরেকটা হোঁচট খাওয়ার শঙ্কায় ছিল রিয়াল মাদ্রিদ। তবে শেষ মূহুর্তে দলটিকে রক্ষা করেন ভাসকেস। ম্যাচের অষ্টম মিনিটে প্রথমে এগিয়ে যায় রিয়াল। এ সময়  ইসকোর পাস থেকে বল পেয়ে খুব কাছ থেকে ডর্টমুন্ডের জালে পাঠান মায়োরাল। চার মিনিট পর সমর্থকদের আনন্দের আরও বড় উপলক্ষ এনে দেন রোনালদো। কোনাকুনি শটে লক্ষ্যভেদ করেন পর্তুগিজ এ তারকা ফরোয়ার্ড।

চ্যাম্পিয়নস লিগের গ্রুপপর্ব থেকে ডর্টমুন্ডের বিদায় নিশ্চিত হয়ে গিয়েছিল আগেই। তারপরও রিয়ালকে তাদের মাঠেই ‍রুখে দিতে চেয়েছিল দলটি।দুই গোল হজমের পরও একের পর এক আক্রমণ করে ব্যস্ত রাখে রিয়ালের রক্ষণকে।

ম্যাচের ২৬ ও ৩৬ মিনিটে গোলের সুযোগ নষ্ট করেন ডর্টমুন্ডের তারকা খেলোয়াড় আবমেয়াং।একের পর এক সুযোগ নষ্ট করা আবমেয়াং ৪৩তম মিনিটে মার্সেলোর ক্রসে দারুণ হেডে ব্যবধান কমান। বিশ্রাম শেষে ম্যাচে ২-২ সমতায় এনে সান্তিয়াগো বার্নাব্যুর দর্শকদের উচ্ছ্বাস থামিয়ে দেন আবমেয়াং। ম্যাচের ৪৮ মিনিটে নিজের দ্বিতীয় গোলে ডর্টমুন্ডকে সমতায় ফেরান তিনি।

তবে সফরকারীদের কঠিন পরীক্ষায় ফেলে ৮১তম মিনিটে আবার এগিয়ে যায় রিয়াল। থিও এর্নান্দেসের হেডে বল পেয়ে জালে পাঠান ভাসকেস। তার গোলে আবারও ৩-২ ব্যবধানে এগিয়ে যাওয়ায় উচ্ছ্বাস ফেরে সান্তিয়াগো বানাব্যুর গ্যালারিতে। বাকি সময়ে আর কোনো বিপদ না হওয়ায় এ ব্যবধানেই জয় নিয়ে মাঠ ছাড়তে সক্ষম হয় জিনেদিন জিদানের প্রশিক্ষিত দলটি।



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :




Go Back Go Top