সকাল ৮:০৫, বুধবার, ১৮ই অক্টোবর, ২০১৭ ইং
/ বিনোদন / উপস্থাপনাতেই স্বাচ্ছন্দ্যতা মারিয়া নূরের
উপস্থাপনাতেই স্বাচ্ছন্দ্যতা মারিয়া নূরের
অক্টোবর ৬, ২০১৭

অভি মঈনুদ্দীন : মারিয়া নূর, এই সময়ে দর্শকের পছন্দের একজন উপস্থাপিকা। একজন ফ্যাশন সচেতন উপস্থাপিকা হিসেবেও তার রয়েছে বেশ সুনাম। মিডিয়াতে তার যাত্রাটা ছিলো একজন আরজে হিসেবে। ২০০৯ সালে রেডিও এবিসি’র আর জে হয়ে তার প্রথম কাজ। তবে শাহরিয়ার শাকিলের নির্দেশনায় চ্যানেল টুয়েন্টি ফোর-এ প্রচারিত ট্রাভেল শো ‘সার্কেল দ্য গ্লোব’-এর উপস্থাপনা করে আলোচনায় আসেন তিনি। এই অনুষ্ঠানের মধ্যদিয়েই দর্শকের কাছে তিনি পরিচতি হন একজন উপস্থাপিকা হিসেবে। বলা যায় উপস্থাপনায় আগামীর পথে এগিয়ে যেতে ‘সার্কেল দ্য গ্লোব’ যেন একটি শক্ত ভীত তৈরী করে দেয়। এরপর তিনি চ্যানেল নাইনে প্রচারিত ‘ট্রাভেলার্স স্টোরি’রও উপস্থাপনা করে প্রশংসিত হন। একজন উপস্থাপিকা হিসেবে এগিয়ে যাবার পথ যেন আরো দৃঢ় হয় তার। পাঁচ অঙ্গনে প্রতিষ্ঠিত পাঁচজন নারীকে নিয়ে নির্মিত জিটিভিতে প্রচারিত ‘ফাইভ ফিমেল ফ্রে-স’ ধারাবাহিকে একজন আরজে’র চরিত্রে অভিনয় করে অভিনেত্রী হিসেবেও প্রশংসিত হন তিনি। তবে এর আগে তিনি তৌকীর আহমেদ’র বিপরীতে গোলাম মুক্তাদীর শানের নির্দেশনায় ‘কবিতার নারী অ’কবিতার নারী’ নাটকে প্রথম অভিনয় করেন।

 এতে তিনি বনলতা চরিত্রে অভিনয় করেন। প্রথম নাটকে বনলতা চরিত্রে অভিনয় করে প্রশংসিত হন তিনি। সেই বনলতা’ই আজকের মারিয়া নূর। গেলো ঈদেও তৌকীর আহমেদ’র নির্দেশনায় ‘দাম্পত্য’ নাটকে অভিনয় করেও মারিয়া নূর নন্দিত হন দর্শকের কাছে। গত বছর ঈদে ‘লাক্স স্টাইল চেক’র অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনা করেও বেশ প্রশংসিত হয়েছিলেন মারিয়া নূর। এটি নির্দেশনা দিয়েছিলেন তানিয়া আহমেদ। মারিয়া নূর বলেন, ‘উপস্থাপনাতেই আমি স্বাচ্ছন্দ্যতা খুঁজে পাই। তবে মাঝে মাঝে অভিনয় করতে ভালোই লাগে। যারা শুরু থেকে আমাকে উপস্থাপনায় এগিয়ে যেতে সহযোগিতা করে আসছেন তাদের প্রতি আমি কৃতজ্ঞ। উপস্থাপনা করে দর্শকের কাছ থেকে সবচেয়ে বেশি সাগা পেয়েছিলাম ২০১৪ সালে টি টুয়েন্টি ওয়ার্ল্ডকাপে ক্রিকেট শো করে। এরপর তানিয়া আপুর নির্দেশনায় লাক্স স্টাইল চেক’র কাজ করে ভীষণ ভালোলেগেছিলো। তিনি খুব ঠা-া মাথায় কোরিওগ্রাফি, কস্টিউম ডিজাইন’সহ অন্যান্য আনুষঙ্গিকি বিষয়ে অধিক মনোযোগী থেকে কাজ করেছিলেন। এ কাজটি আমার জন্য ছিলো আশীর্বাদের মতো। অথচ এই অনুষ্ঠানটি আমার করারই কথা ছিলো না।

 কারণ ২০১৫ সালে যখন এটি করার কথা ছিলো, আমার তখন সিডিউল ছিলো না। প্রযোজক সাজু মুনতাসির আমার জন্যই তা পরের বছর করেন কাজটি।’ গেলো ঈদে তৌকীর আহমেদ’র নির্দেশনায় নাটকে শূটিং-এর সময় অভিনয়ে নিয়মিত হবার কথাও বলেন তৌকীর আহমেদ। কিন্তু মারিয়া নূরের আগ্রহ উপস্থাপনায় নিয়মিত থাকা। এর আগে চ্যানেল আই’র আয়োজনে ‘ক্ষুদে গানরাজ’,‘ফেয়ার অ্যা- হ্যা-সাম’র গ্র্যা- ফিনালের উপস্থাপনা করলেও এবার ‘সেরা কন্ঠ-সিজন সিক্সর’র পুরোটারই উপস্থাপনা করছেন তিনি। ইজাজ খান স্বপনের নির্দেশনায় এবারই প্রথম তিনি ‘সেরাকন্ঠ’র উপস্থাপনা করছেন। কুমিল্লার মেয়ে মারিয়া নূরের বাবা মোঃ আব্দুল লতিফ খান ও মা নাসিমা খান। শান্তা মারিয়াম ইউনিভার্সিটি থেকে ফ্যাশন ডিজাইনিং-এ ডিপ্লোমা এবং ঢাকার সিটি কলেজ থেকে অনার্স মাস্টার্স সম্পন্ন করা মারিয়া নূরের জন্মদিন ২১ মার্চ। এই সময়ে অনেকেই উপস্থাপনার সঙ্গে জড়িত। তবে ভিন্নমাত্রার উপস্থাপনার মধ্যদিয়ে অনেকের মধ্যেই মারিয়া নূর নিজেকে আলাদা করে নিয়েছেন। ছবি : মোহসীন আহমেদ কাওছার

এই বিভাগের আরো খবর



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :




Go Back Go Top