ভোর ৫:৩২, শনিবার, ১৫ই ডিসেম্বর, ২০১৭ ইং
/ বিনোদন / অফিসার্স ক্লাবের সুবর্ণ জয়ন্তী’তে গাইলেন রুনা লায়লা
অফিসার্স ক্লাবের সুবর্ণ জয়ন্তী’তে গাইলেন রুনা লায়লা
নভেম্বর ২১, ২০১৭

অভি মঈনুদ্দীন : উপমহাদেশের বরেণ্য সঙ্গীতশিল্পী রুনা লায়লাকে সাধারণত দেশে স্টেজ শো’তে খুব কমই দেখা যায়। অধিকাংশ সময়ই তিনি দেশের বাইরেই স্টেজ শো নিয়ে ব্যস্ত থাকেন। তবে গত ২০ নভেম্বর তিনি রাজধানীর অফিসার্স ক্লাবের ‘সুবর্ণ জয়ন্তী’তে সঙ্গীত পরিবেশন করেছেন। রুনা লায়লাকে বলা পূর্বনিধারিত সময় সন্ধ্যা সাতটায় রুনা লায়লাকে মঞ্চে উঠার জন্য আহ্বান জানানো হয়। অফিসার্স ক্লাবের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা তখন ফুলেল শুভেচ্ছা দিয়ে তাকে মঞ্চে বরণ করে নেন। মঞ্চে উঠে রুনা লায়লা আগত সকল অতিথিদের শুভেচ্ছা জানিয়ে দেশের গান ‘দেশের জন্য যারা দিয়ে গেছো প্রাণ, ভুলিনি আমরা, কোনদিন ভুলবোনা, ভুলবোনা সেই অবদান’ পরিবেশনের মধ্যদিয়ে তার সঙ্গীত পরিবেশন শুরু করেন।

 এরপর তিনি একে একে শ্রোতা দর্শককে গেয়ে শুনান ‘প্রতিদিন তোমায় দেখি সূর্যর আগে’, ‘আমায় গেঁথে দাওনা মাগো একটা পলাশ ফুলের মালা’, ‘অনেক বৃষ্টি ঝরে তুমি এলে’, ‘দাইয়ারে দাইয়ারে কাটা চুবা’, ‘হোই হোই হোই দিল ধারকে’, ‘ইস্টিশানের রেলগাড়িটা মাইপা চলে ঘড়ির কাটা’, ‘এই বৃষ্টি ভেজা রাতে চলে যেওনা’, ‘যখন থামবে কোলাহল’, ‘দে দে পেয়ার দে ও মালিক পেয়ার দে’, ‘দমাদম মাস্কালান্দার’সহ আরো বেশ কিছু গান। রুনা লায়লা পারফর্ম্যান্সে মুগ্ধ হয়ে উপস্থিত সবাই তার গাওয়া গান শুনছিলেন।

আবার অনেকেই মঞ্চে উঠে আসেন, রুনার পাশে দাঁড়িয়েই তার গানে নাচেনও কিছুটা সময়। প্রতিটি গানের পর উপস্থিত দর্শকের অনবরত করতালি রুনা লায়লা কে গান গাওয়ার অনুপ্রেরণা যুগায়। রুনা লায়লা বলেন,‘ সবসময়ের মতোই আমি মঞ্চে গাওয়াটা ভীষণ উপভোগ করি। গান গাওয়ার সাথে সাথে উপস্থিত দর্শক শ্রোতার কাছ থেকে সরাসরি যে সাড়া মিলে তা আমাকে ভীষণ উৎসাহিত করে। আমি নতুন করে অনুপ্রাণিত হই।


ভালোলাগে এই ভেবে যে সববয়সী শ্রোতা দর্শকই আমার গান ভালোবাসেন। এটা শিল্পী হিসেবে আমার অনেক ভালোলাগা।’ রুনা লায়লাকে অফিসার্স ক্লাবের সুবর্ণ জয়ন্তী’র এই অনুষ্ঠানে যন্ত্রশিল্পী হিসেবে যারা উপস্থিত ছিলেন তারা হচ্ছেন কী বোর্ডে ফোয়াদ নাসের বাবু, রূপতনু, লিড গিটারে সেলিম হায়দার, বেজ গিটারে তানিম, বাঁশিতে মনির, পেড-এ সাদেক আলী এবং তবলা ঢোল-এ মিলন ভট্ট। এদিকে আলমগীরের নির্দেশনায় রুনা লায়লা প্রথমবারের মতো সঙ্গীত পরিচালক হিসেবে আতœপ্রকাশ করেছেন। গাজী মাজহারুল আনোয়ারের লেখা ‘গল্প কথার ঐ কল্পলোকে জানি একদিন চলে যাবো’ গানটিতে রুনার সুর সঙ্গীতে কন্ঠ দিয়েছেন আঁখি আলমগীর। ছবি ঃ মোহসীন আহমেদ কাওছার।

এই বিভাগের আরো খবর



লাইক দিয়ে সঙ্গে থাকুন :




Go Back Go Top