মঙ্গলবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০১৬
ad
১৫ এপ্রিল, ২০১৬ ১৫:৩৪:২৬
প্রিন্টঅ-অ+
নাটকীয় জয়ে শেষ চারে লিভারপুল
ম্যাচ শুরুর ৯ মিনিটের মধ্যেই দুই গোলে এগিয়ে গিয়েও জিততে পারেনি বরুসিয়া ডর্টমুন্ড। সাত গোলের রোমাঞ্চকর ম্যাচে শেষ মুহূর্তের নাটকীয়তায় ডর্টমুন্ডকে হারিয়ে ইউরোপা লিগের সেমিফাইনালে উঠে গেছে লিভারপুল।

কোয়ার্টার ফাইনালে ডর্টমুন্ডের মাঠে প্রথম লেগের ম্যাচটি ১-১ গোলে ড্র হয়েছিল। বৃহস্পতিবার রাতে অ্যানফিল্ডে ৪-৩ গোলে জয় পেয়েছে লিভারপুল। ফলে দুই লেগ মিলিয়ে ৫-৪ গোলে এগিয়ে থেকে টুর্নামেন্টের শেষ চারের টিকিট নিশ্চিত করেছে ইয়ুর্গেন ক্লুপের দল।

লিভারপুলের মাঠে ম্যাচ শুরুর ৯ মিনিটের মধ্যেই ২-০ গোলে এগিয়ে গিয়েছিল ডর্টমুন্ড। পঞ্চম মিনিটে অতিথিদের লিড এনে দেন মিডফিল্ডার হেনরিখ মেখিতারিয়ান। তিন মিনিট পরেই ব্যবধান দ্বিগুণ করেন গ্যাবনিজ স্ট্রাইকার পিয়ের-এমেরিক অবামেয়াং।

শুরুতেই ডর্টমুন্ড দুই গোলে এগিয়ে যাওয়ায় শেষ চারে উঠতে লিভারপুরের তখন তিন গোল প্রয়োজন ছিল। কঠিন ব্যাপারই বটে।

দ্বিতীয়ার্ধের ৪৮ মিনিটে গোল করে ব্যবধানটা কমিয়ে আনেন ডিভক অরিজি। তবে ৫৭ মিনিটে মার্কো রিউস গোল করে ডর্টমুন্ডকে ৩-১ ব্যবধানে এগিয়ে দিলে আবারও তিন গোলের সমীকরণে পড়ে যায় লিভারপুল।

সেই কঠিন সমীকরণকে সামনে রেখে বাকি সময়ে কী দুর্দান্তভাবেই না ঘুরে দাঁড়াল স্বাগতিকরা। ৬৬ ও ৭৭ মিনিটে যথাক্রমে কুতিনহো ও সাকো গোল করে স্কোরলাইন ৩-৩ করেন।

অ্যাওয়ে গোলে এগিয়ে থাকার সুবাদে তখনো শেষ চারের স্বপ্ন জ্বলজ্বল করছিল ডর্টমুন্ডেরই। কিন্তু আসল নাটকীয়তার যে তখনো বাকি!

নির্ধারিত ৯০ মিনিটের পর যোগ করা সময়ে দারুণ এক হেডে গোল করে লিভারপুলকে ৪-৩ গোলে এগিয়ে দেন ডিজন লোভরেন। ডানদিক থেকে জেমস মিলনের ক্রসে লাফিয়ে উঠে হেডে বল জালে জড়িয়ে দেন ক্রোয়েশিয়ার এই ডিফেন্ডার। আর তার এই গোলটিই লিভারপুলকে শেষ চারের টিকিট এনে দেয়।
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত