রবিবার, ১১ ডিসেম্বর ২০১৬
ad
৩০ এপ্রিল, ২০১৬ ১৬:০৬:৪২
প্রিন্টঅ-অ+
খুনিদের আড়ালের চেষ্টায় সরকার: নজরুল

সাম্প্রতিক হত্যাকাণ্ডগুলোর জন্য বিএনপি-জামায়াতকে দায়ী করে সরকার আসলে খুনিদের আড়াল করতে চাইছে বলে দাবি করেছেন নজরুল ইসলাম খান।

শনিবার ঢাকায় এক আলোচনা সভায় বিএনপির স্থায়ী কমিটির এই সদস্য বলেছেন, “যখনই কেউ মারা যায়, তখন সারিন্দা বাজানোর মতো বলেই চলছে যে, এর জন্য বিএনপি-জামায়াত দায়ী।

“একটা ঘটনার সাথে সাথে দেশের সর্বোচ্চ পর্যায় থেকে যদি রায় দিয়ে দেওয়া হয় যে এর জন্য দায়ী অমুক। তাহলে তার অধস্থন কোনো কর্মচারীর সাহস আছে যে এর বাইরে অন্য কোনো রিপোর্ট করবে, তদন্তে যা-ই পাওয়া যাক না কেন।”

“এভাবে তদন্ত ও বিচারকে প্রভাবিত করার ফলেই এই হত্যাকাণ্ড বন্ধ হচ্ছে না। কারণ যারা আসল অপরাধী তাদেরকে আড়াল করে দেওয়া হচ্ছে এবং তাদেরকে সুযোগ করে দেওয়া হচ্ছে পার পেয়ে যাওয়ার জন্য,”বলেন তিনি।

সন্দেহভাজন জঙ্গি হামলায় গত বছরে কয়েকজনের পর এই বছরে এই পর্যন্ত অন্তত চারজন হত্যাকাণ্ডের শিকার হয়েছেন।

বাংলাদেশকে অস্থিতিশীল করতে বিএনপি-জামায়াত জোট এভাবে গুপ্তহত্যা চালাচ্ছে বলে বক্তব্য এসেছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছ থেকে।

সরকারের উদ্দেশে বিএনপি নেতা নজরুল বলেন, “এসব কথাবার্তা বন্ধ করুন। বিএনপি খুন-হত্যা-সন্ত্রাসের রাজনীতিতে বিশ্বাস করে না।

“আমরা বার বার আমরা বলছি, খুনি ও জঙ্গিদের ধরার জন্য বিএনপি সহযোগিতা করতে রাজি আছে। তারপরও রাজনৈতিক কারণে অভিযোগ তুলে আসল খুনিকে আড়াল করার যে চেষ্টা, এটার কারণ কী তার তদন্ত করার বিষয়।”

পুরানা পল্টনে বাংলাদেশ ফটো জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশন মিলনায়তনে লেবার পার্টির উদ্যোগে মে দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন শ্রমিক নেতা নজরুল।

তিনি বলেন, “বাংলাদেশের মানুষ আজ এক অনিরাপদ ও অস্বস্তিকর পরিস্থিতিতে আছে। কে কখন কোথায় গুম হয়ে যাবে, কে কোথায় কখন খুন হয়ে যাবে, কেউ জানে না।”

সাংবাদিক দম্পতি সাগর-রুনি হত্যাকাণ্ডের কোনো কূল-কিনারা না হওয়ায়ও ক্ষোভ প্রকাশ করেন বিএনপি নেতা।

“আজ তনু হত্যার বিচার হচ্ছে না। পত্রিকায় দেখলাম তার পরিবার বলেছেন, আল্লাহর কাছে বিচার দিলাম। ব্লগার অভিজিৎ রায়ের বাবা অধ্যাপক অজয় রায় বলেছেন, আসলে সরকারের আগ্রহ নেই বিচার করার। প্রকাশক ফয়সল আরেফিন দীপনের বাবা অধ্যাপক আবুল কাসেম ফজলুল হক বলেছেন, আল্লাহর ওপর ছেড়ে দিয়েছি।”

“মানুষ হতাশ ও নিরাশ হয়ে যাচ্ছে। এর পরিবর্তন দরকার। আমরা বিশ্বাস করি, জনপ্রতিনিধিত্বশীল ও জনগণের কাছে দায়বদ্ধ সরকার ছাড়া এধরনের দুর্ভোগ ও অনিশ্চয়তার অবসানের কোনো সুযোগ নেই।”

বাংলাদেশের পোশাক শিল্পের কর্মীরা ন্যায্য মজুরি পাচ্ছে না অভিযোগ করে শ্রমিক নেতা নজরুল বলেন, “সরকারের ঘোষিত পে কমিশনের ন্যূনতম মজুরি হল ৮ হাজার ২০০ টাকা। আর পোশাক শিল্পের শ্রমিকদের ন্যূনতম মজুরি হল ৫ হাজার ৩০০ টাকা।

“অর্থাৎ সরকার নিজে যে ন্যূনতম মজুরি ঠিক করেছে, তার থেকে তিন হাজার টাকা কম মজুরি পাচ্ছেন পোশাক শিল্পের শ্রমিকরা। এ নিয়ে দাবি করতে যাবেন, এ নিয়ে আন্দোলন করতে যাবেন, তখন আপনাকে বলা হবে এ শিল্পের শত্রু, রপ্তানির শত্রু, অর্থনীতির শত্রু, দেশের শত্রু।”

লেবার পার্টির চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান ইরানের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় অন্যান্যের মধ্যে দলের মহাসচিব হামদুল্লাহ আল মেহেদি, সহ-সভাপতি ফারুক রহমান, এমদাদুল হক চৌধুরী, যুগ্ম মহাসচিব উম্মে হাবিবা রহমান, মাহমুদ খান, আবদু্ল্লাহ আল মামুন, শ্রমিক ফেডারেশনের সহকারী সম্পাদক মজিবুর রহমান ভুঁইয়া বক্তব্য রাখেন।
 
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত

রাজনীতি এর অারো খবর