সোমবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৬
ad
২৫ এপ্রিল, ২০১৬ ১২:৪৪:৩৯
প্রিন্টঅ-অ+
সহিংস সন্ত্রাসের কবলে দেশ : বিএনপি
অপরাধী শনাক্ত এবং শাস্তি নিশ্চিত না হওয়ায় দেশে ক্রমাগতভাবে অপরাধপ্রবণতা বৃদ্ধি পাচ্ছে দাবি করে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ‘এখন গোটা দেশটাই সহিংস সন্ত্রাসকবলিত।’

 

তিনি বলেন, ‘ভোটারবিহীন সরকারের দুষ্কর্মের কারণেই দুস্কৃতিকারীরা আস্কারা পাচ্ছে এবং সে কারণে জীবনবিনাশী কর্মকাণ্ডের মাত্রা বৃদ্ধি পাচ্ছে। মূলত দেশ এখন ভয়ংকর অরাজকতার মধ্যে।’

 

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের অধ্যাপক ড. এ এফ এম রেজাউল করিম সিদ্দিকীকে হত্যা ইস্যুতে রোববার গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে মির্জা  ফখরুল এ কথা বলেন।

 

শনিবার সকালে রেজাউল করিমকে তার নিজ বাড়ির সামনে দুস্কৃতিকারীরা কুপিয়ে হত্যা করে। এ ঘটনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে এর তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানান মির্জা ফখরুল।

 

বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘দেশে ন্যায় বিচার সম্পূর্ণরূপে বিলুপ্ত হয়ে যাওয়ায় একের পর এক হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটছে। দেশের সর্বোচ্চ বিদ্যাপিঠ হলো বিশ্ববিদ্যালয়, সেই বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদেরও এখন প্রাণ কেড়ে নেওয়া হচ্ছে।’

 

তিনি বলেন, ‘এর আগে এই বিশ্ববিদ্যালয়ে সংঘটিত হত্যাকা-গুলোর প্রকৃত রহস্য উদঘাটন এবং হত্যার শাস্তি না হওয়ার কারণে দুস্কৃতিকারীরা শিক্ষকদের খুন করে যাচ্ছে। রাষ্ট্রযন্ত্রকে দলীয় স্বার্থে ও বিরোধী দল দমনে ব্যবহার করার কারণে আজ দেশব্যাপী খুন, গুম, অপহরণ, গুপ্তহত্যা ও বিচারবহির্ভূত হত্যাকাণ্ডের প্রকোপ বৃদ্ধি পাওয়ায় গোটা দেশটাই এখন সহিংস সন্ত্রাসকবলিত।’

 

অপর এক বিবৃতিতে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব ও রাকসুর সাবেক ভিপি অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী এই হত্যার ঘটনায় জড়িতদের গণতন্ত্র, মানবতা, মনন, মণীষা, কৃষ্টি ও সভ্যতার শত্রু আখ্যা দেন।

 

তিনি বলেন, ‘এই পৈশাচিক ঘটনায় প্রধান দায় সরকারের। কারণ এই বিশ্ববিদ্যালয়ে এ পর্যন্ত যতগুলো হত্যাকা- সংঘটিত হয়েছে তার কোনোটিতেই তারা প্রকৃত অপরাধীদের শনাক্ত করে আইনের আওতায় এনে শাস্তি দিতে পারেনি।’

 

তিনি সিদ্দিকীর রুহের মাগফিরাত কামনা করেন এবং পরিবারের শোকাহত সদস্য ও গুণগ্রাহীদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

 

 
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত

রাজনীতি এর অারো খবর