সোমবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০১৬
ad
  • হোম
  • রাজনীতি
  • সরকারি কর্মচারীদের সততার সাথে দায়িত্ব পালনের আহ্বান তথ্যমন্ত্রীর
    |    
২৪ এপ্রিল, ২০১৬ ২০:৪১:১৭
প্রিন্টঅ-অ+
সরকারি কর্মচারীদের সততার সাথে দায়িত্ব পালনের আহ্বান তথ্যমন্ত্রীর
ফাইল ছবি

তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু সুশাসনের জন্য সরকারি কর্মচারিদের ভ্রষ্টাচার পরিহার করে শুদ্ধাচারের মাধ্যমে সততা ও জনসেবকের প্রতীক হিসেবে কাজ করার আহবান  জানিয়েছেন।
তিনি বলেন, সংবিধান অনুযায়ী জনগণই দেশের মালিক। সরকারি কর্মচারিদের বুঝতে হবে, তারা জনগণের কর্মচারি মাত্র। জনগণকে সেবা দিতে ও গণমাধ্যমকে তথ্য দিতে  তৎপর থাকতে হবে। গণতন্ত্র ও গণমাধ্যমের মাঝে সেতুবন্ধ হিসেবে তথ্য মন্ত্রণালয়ের কাজ যেমন গুরুত্বপূর্ণ তেমনি দ্রুততারও দাবি রাখে।
হাসানুল হক ইনু আজ রবিবার সকালে তথ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকে মন্ত্রণালয় আয়োজিত জাতীয় শুদ্ধাচার কৌশল বিষয়ক প্রশিণ কর্মশালা উদ্বোধনকালে প্রধান অতিথির বক্তৃতায়  এ আহ্বান জানান।
জবাবদিহিতা, স্বচ্ছতা, সততা ও নৈতিকতানির্ভর জনসেবার ওপর সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব আরোপ করে মন্ত্রী বলেন, ‘দুর্নীতি, খারাপ ব্যবহার, তথ্য প্রদানে অনীহা, ফাইল আটকে রাখা, আইন অমান্য করা এবং সেবাপ্রার্থীকে  অহেতুক অপো করিয়ে রাখার মতো অনৈতিক কাজ থেকে সকল স্তরের কর্মচারিদের  বিরত রাখার উদ্দেশ্যেই শুদ্ধাচারের প্রবর্তন করেছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার।’
অনুষ্ঠানের সভাপতি তথ্য সচিব মরতুজা আহমদ বলেন, ‘সুশাসন প্রতিষ্ঠায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর নির্দেশনা অনুযায়ী শুদ্ধাচার বিষয়ে নাগরিকদের সচেতন করার কাজ করছে তথ্য মন্ত্রণালয়। কারণ, জাতির পিতা বলেছেন, শুধু আইন কানুন দিয়ে নয়, দুর্নীতিমুক্ত রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠায় প্রয়োজন প্রত্যেকের নিজস্ব শুদ্ধাচার চর্চা।
সংসদ বাংলাদেশ টেলিভিশনকে শুদ্ধাচারের একটি প্রকৃষ্ট উদাহরণ উল্লেখ করে মরতুজা আহমদ বলেন, ‘জনগণ নির্বাচিত সংসদ সদস্যদের কাজ জনগণের সামনে তুলে ধরার কাজটি করছে সংসদ বিটিভি। এর প্রতিষ্ঠাই শুদ্ধাচারের একটি বড় পদপে।’
এ সময় তথ্য সচিব জাতীয় সম্প্রচার আইন-২০১৬ এর খসড়া তথ্য মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে দেশের সকলের মতামতের জন্য উন্মুক্ত করে দেয়াকে স্বচ্ছতার নজীর হিসেবে  বর্ণনা করে বলেন, ‘তথ্য মন্ত্রণালয় স্বচ্ছতায় বিশ্বাসী। মন্ত্রণালয়ের সকল অধিদপ্তর ও সংস্থাকে বছরে অন্তত ষাট ঘন্টা শুদ্ধাচার কৌশল বিষয়ে প্রশিণের আয়োজন করতে হবে।’
মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব এ এস এম মাহবুবুল আলম অনুষ্ঠানে সূচনা বক্তব্য দেন। অতিরিক্ত সচিব সরাফ উদ্দিন আহমদ, শাহজাদী আঞ্জুমান আরা, রোকসানা মালেকসহ মন্ত্রণালয়ের সর্বস্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ দিনব্যাপী কর্মশালায় অংশ নেন।
 
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত

রাজনীতি এর অারো খবর