বুধবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০১৬
ad
  • হোম
  • জাতীয়
  • বাংলাদেশের জন্য যুক্তরাজ্যের বাণিজ্য দূত রুশনারা
১৫ এপ্রিল, ২০১৬ ১৯:০৫:০৫
প্রিন্টঅ-অ+
বাংলাদেশের জন্য যুক্তরাজ্যের বাণিজ্য দূত রুশনারা
বাংলাদেশে যুক্তরাজ্যের বাণিজ্য দূত হিসেবে লেবার পার্টির এমপি রুশনারা আলীর নাম ঘোষণা করেছেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরন।
ঢাকার ব্রিটিশ হাইকমিশন শুক্রবার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে, বাংলাদেশের সঙ্গে বাণিজ্য ও বিনিয়োগ অংশীদারিত্বের গুরুত্ব বিবেচনা করে সরকার এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে।
বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, পহেলা বৈশাখের উৎসবের দিন বাংলাদেশের জন্য বাণিজ্য দূত হিসেবে রুশনারা আলীকে মনোনীত করেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরন।
বাংলাদেশের সঙ্গে বাণিজ্য সম্পর্ক ও বিনিয়োগের বিষয়টি বিবেচনায় এনে এ বিষয়ে গুরুত্ব দিয়েই রুশনারাকে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। বাংলাদেশে অন্যতম প্রধান বিনিয়োগকারী যুক্তরাজ্য এবং বাংলাদেশের সঙ্গে গভীর ও দীর্ঘ সম্পর্ক রয়েছে ব্রিটিশ সরকারের। রুশনারা আলী দুই দেশের বাণিজ্য ও বিনিয়োগ সম্ভাবনার সমন্বয় করবেন। বাণিজ্য বাড়াতে তিনি দুই দেশের ব্যবসায়ীদের সঙ্গে আলোচনা করবেন। এছাড়া তিনি জলবায়ু পরিবর্তনের বিষয়ে এবং বাংলাদেশের পোশাক শিল্পের সহায়তার জন্য পোশাক কর্মীদের কাজের পরিবেশ ও জীবন মান নিয়েও সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে কাজ করবেন।
সিলেটের মেয়ে রুশনারা আলী ব্রিটিশ পার্লামেন্টে প্রতিনিধিত্বকারী প্রথম বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ নাগরিক। তিনি টানা দুই মেয়াদে এমপি নির্বাচিত হয়েছেন।
রুশনারা আলীর নিয়োগের খবর শুনে বাংলাদেশে নিযুক্ত ব্রিটিশ হাই কমিশনার অ্যালিসন ব্লেক বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী রুশনারা আলীকে বাংলাদেশের জন্য বাণিজ্য দূত হিসেবে নিয়োগ দেওয়ায় বাংলা নতুন বছরের শুরুতে আমি খুবই আনন্দিত। বাংলাদেশের অর্থনীতি ক্রমাগত সমৃদ্ধ হচ্ছে এবং এখানে ব্রিটিশ প্রতিষ্ঠানগুলোর জন্য ব্যাপক সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে। আমাদের কোম্পানিগুলো বিশ্ব মানের পণ্য আছে এবং বাংলাদেশে ব্রিটিশ বাণিজ্যের জন্য রুশনারা আলী অপ্রতিদ্বন্দ্বী হয়ে উঠবেন আশা করি। যুক্তরাজ্যের সঙ্গে বাংলাদেশের বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক দৃঢ় করতে আমরা তার সঙ্গে কাজ করার জন্য অপেক্ষায় আছি।

বাংলাদেশের জন্য বাণিজ্য দূত হিসেবে নিয়োগ পেয়ে রুশনারা আলী বলেছেন, বাংলাদেশে যুক্তরাজ্যের বাণিজ্য দূত হিসেবে নিয়োগ পেয়ে আমি খুবই খুশি। যুক্তরাজ্য ও বাংলাদেশের মধ্যে ঐতিহাসিক সম্পর্ক আছে। বাণিজ্য ও বিনিয়োগের জন্য বাংলাদেশ এক সম্ভাবনাময় বাজার। আমি আশা করব শুধু বাণিজ্য নয়, অর্থনীতি ও জলবায়ূ পরিবর্তনের বিষয়ে যুক্তরাজ্য বাংলাদেশকে সহায়তা করবে।
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত

জাতীয় এর অারো খবর