রবিবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০১৬
ad
  • হোম
  • জাতীয়
  • ‘নববর্ষ উৎসব নির্বিঘ্ন করতেই বিধিনিষেধ’
১২ এপ্রিল, ২০১৬ ১৭:৫৬:১১
প্রিন্টঅ-অ+
‘নববর্ষ উৎসব নির্বিঘ্ন করতেই বিধিনিষেধ’
স্বাধীনতা হরণ নয়, বরং নববর্ষ উৎসব নির্বিঘ্ন করতেই কিছু বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে।

মঙ্গলবার দুপুর ১২টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেট ভবনে এক যৌথ সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন ডিএমপি কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া।

ডিএমপি কমিশনার বলেন, ‘এরই মধ্যে মঙ্গল শোভাযাত্রায় মুখোশ না পড়ার জন্য সকলকে অনুরোধ করা হয়েছে। তবে চারুকলার তৈরি মুখোশগুলো হাতে নিতে বাঁধা নেই। মঙ্গল শোভাযাত্রাকে ঘিরে পুলিশ ও গোয়েন্দা পুলিশের বিশেষ টিম সোয়াত নিরাপত্তা দেবে।’

এক প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, ‘অবশ্যই বিকেল ৫টার মধ্যে উম্মুক্ত স্থানের সব অনুষ্ঠান বন্ধ করতে হবে। তবে এরপর বৈশাখের পোশাক পরে সকলে হাটাচলা করতে পারবে ও আনন্দ করতে পারবে।’

তিনি আরো বলেন, ‘কয়েকদিন ধরে একটি কুচক্রী মহল নববর্ষের আনন্দ উৎসবকে নস্যাৎ করার জন্য উঠে পড়ে লেগেছে। স্পষ্ট করে বলতে চাই, কোনো গোষ্ঠী বা কোনো ব্যক্তি বাঙালির প্রাণের উৎসবকে নষ্ট করতে পারবে না। সকল প্রকার ষড়যন্ত্র নস্যাৎ করে নগরবাসীকে নববর্ষ উযযাপন করতে সর্বাত্তক সহযোগিতা প্রদান করা হবে।’

 সংবাদ সম্মেলনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য শহীদ আক্তার হোসেন বলেন, ‘চারুকলার আয়োজনে মঙ্গল শোভাযাত্রায় ব্যাপক নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় ভুভুজেলা বাঁশি বিক্রি ও বাঁজানো নিষিদ্ধ করা হয়েছে। পুরো ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় সিসি ক্যামেরা ও ওয়াচ টাওয়ার স্থাপন করা হয়েছে। ক্যাম্পাসে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের পাশাপাশি ৪০০ রোভার স্কাউট সদস্য মোতায়েন থাকবে।’


তিনি বলেন, ‘ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল ক্রিয়াশীল ছাত্র সংগঠনগুলোর প্রতিনিধিদের সঙ্গে কথা বলা হয়েছে। তারা ওই দিন যেকোন সমস্যায় সহযোগিতার জন্য মাঠে থাকবে। কেউ সহযোগিতা চাইলে তা দেওয়া হবে। জরুরি ঘোষণার জন্য মাইক ব্যবহার করা হবে। স্টিকারভুক্ত গাড়ি ছাড়া ঢাবি ক্যাম্পাসে অন্য কোনো গাড়ি প্রবেশ করতে পারবে না। নববর্ষের দিন রাজু ভাস্কর্য গেটটি বন্ধ থাকবে। আর বিকেল ৫টার মধ্যে ঢাবি ক্যাম্পাসের সকল অনুষ্ঠান শেষ করা হবে।’

 সংবাদ সম্মেলনে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ড. আমজাদ হোসেন, ডিএমপির অতিরিক্ত কমিশনার শেখ মারুফ হাসান, অতিরিক্ত কমিশনার (সিটি) মনিরুল ইসলাম, যুগ্ম কমিশনার(অপস), যুগ্ম কমিশনার (ক্রাইম) কৃঞ্চ পদ রায়, যুগ্ম কমিশনার মীর রেজাউল আলম, রমনা বিভাগের উপ কমিশনার আব্দুল বাতেন, গণমাধ্যম শাখার উপ কমিশনার মারুফ হোসেন সরদার ও অতিরিক্ত উপ কমিশনার জাহাঙ্গীর আলম সরকার উপস্থিত ছিলেন।
 
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত

জাতীয় এর অারো খবর