মঙ্গলবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০১৬
ad
২৩ এপ্রিল, ২০১৬ ১৬:১৫:৪৫
প্রিন্টঅ-অ+
পানামায় মোসাক ফনসেকার সম্পত্তিতে অভিযান
পানামায় আইনি পরামর্শক প্রতিষ্ঠান মোসাক ফনসেকার ব্যবহৃত সম্পত্তিতে অভিযান চালিয়েছে দেশটির তদন্ত কর্মকর্তারা। শুক্রবার এ অভিযান পরিচালনা করা হয় বলে দেশটির কর্মকর্তারা জানিয়েছেন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ওই কর্মকর্তা জানিয়েছেন, পরবর্তীতে অভিযানের বিস্তারিত বিবরণসহ বিবৃতি দেওয়া হবে।

পানামার গণমাধ্যম জানিয়েছে, তদন্তকারী কর্মকর্তারা মোসাক ফনসেকার গুদামঘরে অভিযান চালিয়েছেন। তারা সেখান থেকে ব্যাগে ভর্তি করে বিভিন্ন কাগজপত্র নিয়ে গেছেন।

সম্প্রতি বিশ্বের ৭২ টি দেশের বর্তমান ও প্রাক্তন রাষ্ট্রপ্রধান এবং রাজনীতিবিদসহ শতাধিক ক্ষমতাধর মানুষ এবং তাদের নিকটাত্মীয়দের বিদেশে অর্থ পাচারের তথ্য উঠে আসে মোসাক ফনসেকার ফাঁস হওয়া ১ কোটি ১৫ লাখ নথিতে। এসব নথিতে দেখা গেছে মিশরের প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট হোসনি মুবারক, লিবিয়ার প্রাক্তন রাষ্ট্রপ্রধান মুয়াম্মার গাদ্দাফি এবং সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাশার আল আসাদ প্রতিষ্ঠানটির মক্কেল। এছাড়া সৌদি বাদশাহ সালমান, আরব আমিরাতের প্রেসিডেন্ট খলিফা বিন জায়েদ বিন সুলতান, ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী ডেভিড ক্যামেরনের বাবা প্রয়াত ইয়ান ক্যামেরন, মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী নাজিব রাজাকের ছেলে মোহাম্মদ নাজিব, সাবেক চীনা প্রধানমন্ত্রী লি পেংয়ের মেয়ে লি শিয়াওলিন এবং পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফের তিন ছেলেমেয়েও রয়েছেন মক্কেলদের তালিকায়। অফশোর কোম্পানি প্রতিষ্ঠায় অভিজ্ঞ মোসাক ফনসেকার মাধ্যমে এসব ব্যক্তি বিদেশে অর্থ পাচার করেছেন।

এ ঘটনায় আন্তর্জাতিক চাপের মুখে পানামার প্রেসিডেন্ট মোসাক ফনসেকার বিরুদ্ধে তদন্তের ঘোষণা দেন। এর অংশ হিসেবে গত সপ্তাহে প্রতিষ্ঠানটির প্রধান কার্যালয়ে অভিযান চালিয়ে নথিপত্র জব্দ করেছিলেন তদন্ত কর্মকর্তারা।

তবে মোসাক ফনসেকার পক্ষ থেকে দাবি করা হয়েছে, তারা কোনো বেআইনি কাজ করেনি। আইনি প্রক্রিয়াতেই গত ৪০ বছর ধরে তারা কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে।
  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত

আন্তর্জাতিক এর অারো খবর